এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত জানানোর জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে বিতর্ক বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী

প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত জানানোর জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে বিতর্ক বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী



সাধারণ মানুষকে সাক্ষী রেখেই এবার প্রশাসনিক নির্দেশ দেওয়া শুরু করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমী পার্টি সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরীবাল। এই কাজে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকেই হাতিয়ার করেছেন তিনি। তাঁর সরকার কোন কোন কাজ কী ভাবে করতে চাইছে সেটা ট্যুইটারের মাধ্যমে দিল্লীবাসীকে জানিয়েছেন কেজরীবাল। কাজগুলি সম্পূর্ণ না হলে কার দায় সেটা বুঝে নেওয়ার জন্যে জনগনকে ততপর হতে আহ্বাণ জানিয়েছেন তিনি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

একই সঙ্গে এদিন তিনি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অগ্রাহ্য করার অভিযোগ তুলে বললেন, ”এতে নৈরাজ্য দেখা দেবে।” শুক্রবার সন্ধ্যায় দিল্লির উপ-রাজ্যপালের সঙ্গে ২৫ মিনিটের বৈঠকের পরে অরবিন্দ কেজরীওয়াল এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন। সেখানে বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে তিনি অভিযোগ তুলে বলেন, ”ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ কোনও কেন্দ্রীয় সরকার প্রকাশ্যে অগ্রাহ্য করেছে। এটা একটি অনভিপ্রেত দৃষ্টান্ত হয়ে থাকল। এতে নৈরাজ্যের সৃষ্টি হবে।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!