এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ঐতিহাসিক সিঙ্গুর রায়ের সঙ্গে বড়সড় ‘দুর্নীতির’ প্রশ্ন জড়িয়ে গেল

ঐতিহাসিক সিঙ্গুর রায়ের সঙ্গে বড়সড় ‘দুর্নীতির’ প্রশ্ন জড়িয়ে গেল

Priyo Bandhu Media


মারাত্মক অভিযোগ তুললেন কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী অরূনাভ ঘোষ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নাকি টাকা দিয়েছিলেন বিদেশে চিকিত্‍সা করবার আর তাই সিঙ্গুর মামলায় রাজ্য সরকারের পক্ষে রায় দেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অরুণ মিশ্র। বিচারপতিদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ নতুন করে যে সিঙ্গুর বিতর্ক উস্কে দিলো তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। প্রসঙ্গত, সিঙ্গুর আন্দোলন হলো বাম জামানার পতন আর তৃণমূলের উত্থান পর্ব। ২০১৬ তে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অরুণ মিশ্র ও গোপাল গৌড়ার ডিভিশন বেঞ্চ রায় দেন সিঙ্গুরে কৃষকদের জমি ফিরিয়ে দেবার। পাশাপাশি বলা হয় যে ১২ সপ্তাহের মধ্যে কৃষকদেরকে জমি ফেরত্‍ দিতে হবে রাজ্য সরকারকে। ক্ষতিপূরণের টাকাও ফেরত্‍ দিতে হবে না কৃষকদের। ফলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনপ্রিয়তা আরো বেড়ে যায়।
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক বিশাল সাফল্য পান এই ঐতিহাসিক জয় দিয়ে আর সেই উপহার দেন বিচারপতি অরুন মিশ্র। আর এই নিয়েই অরূনাভ ঘোষে দাবি করেন যে সিঙ্গুর মামলার রায় উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে দিয়েছেন বিচারপতি। পাশাপাশি তিনি বলেন যে বিচারপতি অরুণ মিশ্রর বিদেশে চিকিত্‍সা করার খরচা কে দিয়েছিল এই মর্মে একটি RTI হয়। সেখানে পরিষ্কার জানানো হয়, পশ্চিমবঙ্গ সরকার পুরো খরচা দিয়েছে। আর তারপরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে নাকি রায় দেন বিচারপতি। স্বাভাবিক ভাবেই প্রখ্যাত আইনজীবী তথা কংগ্রেস নেতা অরুনাভ ঘোষের এহেন অভিযোগের পরে রীতিমত ঝড় উঠেছে রাজ্য রাজনীতিতে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!