এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গোঁজ-হাতুড়ি-পদ্ম, ব্যালটে হবে জব্দ – সিঙ্গুরের মহামিছিলেও ছন্দপতন

গোঁজ-হাতুড়ি-পদ্ম, ব্যালটে হবে জব্দ – সিঙ্গুরের মহামিছিলেও ছন্দপতন



আসন্ন ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে এবং বিরোধী সহ গোঁজ প্রার্থীদের সমালোচনা মূলক নানা প্রশ্নের মুখে ছাই দিয়ে এদিন সিঙ্গুরে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হুগলি জেলা নেতৃত্ব মহামিছিল করে । মিছিল শুরু হয় সিঙ্গুরের দলুইগাছা থেকে তারপর গোটা এলাকা ঘুরে নাদা হাটতলায় গিয়ে মিছিল শেষ হয়। “গোঁজ-হাতুড়ি-পদ্ম, ব্যালটে হবে জব্দ ” এই স্লোগানেই চললো এই মিছিল। এদিনের মিছিলে কয়েক হাজার দলীয় কর্মী সমর্থক উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন দলের জেলা সভাপতি তথা মন্ত্রী তপন দাশগুপ্ত, সিঙ্গুরের পঞ্চায়েত নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলার কার্যকরী সভাপতি তথা বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল, মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন সহ জেলা নেতৃত্ব। এছাড়াও ছিলেন আরামবাগের সংসদ সদস্য অপরূপা পোদ্দার এবং হুগলির সংসদ সদস্য রত্না দে নাগ। উল্লেখযোগ্য ভাবেই এই মিছিলে সিঙ্গুরের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য উপস্থিত থাকলেও , অনুপস্থিত ছিলেন সিঙ্গুর আন্দোলনের নেতা তথা বিধায়ক বেচারাম মান্না । এই প্রসঙ্গে দলের স্থানীয় কর্মীরা জানালেন পূর্বোল্লিখিত দুই নেতার বিবাদ বেশ পুরনো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই এর প্রতিফলন লক্ষ্য করা গেছে। এদিনের মিছিলে রবীন্দ্রনাথবাবু উপস্থিত থাকার জন্যেই বেচারামবাবু অনুপস্থিত ছিলেন। দলীয় সূত্রের খবর অনুসারে, জেলা নেতৃত্ব হুগলী জেলার গোঁজ প্রার্থীদের নির্বাচন প্রক্রিয়া থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য একাধিকবার বৈঠক করেছেন। জেলা নেতৃত্বের অনুরোধে বেশিরভাগ এলাকায় গোঁজ প্রার্থীরা নির্বাচন প্রক্রিয়া থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। কিন্তু সিঙ্গুরে এখনও একশ’র ও বেশি সংখ্যক গোঁজ প্রার্থী রয়েছে। জানা যাচ্ছে আসন্ন নির্বাচনে রবীন্দ্রনাথবাবু বনাম বেচারামের অনুগামীদের মধ্যে টিকিট বণ্টন নিয়েই এই গণ্ডগোল। এই প্রসঙ্গে দলের এক নেতা বললেন, “দু’জনের গণ্ডগোল মেটানোর জন্য রবীন্দ্রনাথবাবু এবং বেচারামকে নিয়ে বেশ কয়েকবার বৈঠক করা হয়েছিল। সেখানে পঞ্চায়েত ধরে ধরে প্রার্থী ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু, তার পরেও গণ্ডগোল থামেনি। প্রচুর নির্দলের প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা করেন। রবীন্দ্রনাথবাবুর নির্দল প্রার্থীরা প্রার্থীপদ প্রত্যাহার করলেও বেচারামের নির্দলরা থেকে গিয়েছেন। তাঁরা সরে দাঁড়াননি। ” দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনের পাশাপাশি গোঁজ প্রার্থীদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দেওয়াই ছিল এদিনের মিছিলের প্রধান লক্ষ্য।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!