এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > শিক্ষামন্ত্রীর ক্লাবে হামলা, গেরুয়া যোগের খোঁজে পুলিশ

শিক্ষামন্ত্রীর ক্লাবে হামলা, গেরুয়া যোগের খোঁজে পুলিশ



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  গতকাল শনিবার রাতে কলকাতার বিখ্যাত নাকতলা উদয়ন সংঘ ক্লাবে ঘটে গেল এক নজিরবিহীন ঘটনা। গতকাল বিকালে ক্লাবের নিকটে জোরে বাইক নিয়ে ঘুরছিল কিছু যুবক। যাদের সঙ্গে ক্লাবের কর্মকর্তাদের বচসা বাঁধে। ঘনবসতিপূর্ণ এই এলাকায় দ্রুতগতিতে বাইক চালানোয় তা নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন কিছু এলাকাবাসী। বিষয়টি ক্লাবের কর্মকর্তাদের জানানো হলে, ক্লাবের কর্মকর্তারা যুবকদের এলাকা ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। তখনই তাদের মধ্যে বচসা বাধে। বাইকে বসে থাকা যুবকেরা ক্লাবের কর্মকর্তাদের হুমকি দিয়ে সে স্থান ত্যাগ করে।

এরপর গত শনিবার রাত এগারোটার সময়ে ক্লাবে ঢুকে ব্যাপকভাবে ভাঙচুর চালায় এই যুবকেরা। স্থানীয় সূত্র অনুযায়ী, গতকাল রাতে ১৫ থেকে ২০ টি বাইকে চড়ে ৩০ থেকে ৪০ জন যুবক এসেছিল ক্লাবে। তাদের ভাংচুরের চোটে প্রাণ বাঁচাতে ক্লাবের ছাদে আশ্রয় নিয়েছিলেন ক্লাবের কেয়ারটেকারেরা। ক্লাবের পাশে থাকা জনৈক বাসিন্দা এই ঘটনাকে ক্যামেরাবন্দি করেছিলেন। তাঁকে দেখতে পেয়ে এই যুবকেরা তাঁকেও প্রচণ্ড মারধর করে, তাঁর মাথা ফাটিয়ে দিয়েছিল। তিনি গুরুতর আহত হয়ে পড়েন। এরপর স্থান ত্যাগ করে ওই যুবকেরা। এই ঘটনা নিয়ে বিরাট শোরগোল পড়ে যায় এলাকাজুড়ে।

এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল শনিবার রাত ১১ টা নাগাদ বাইকে আসা যুবকেরা ক্লাবের দুটি ঘরের ভেতরের আয়না ও কাঁচ ভাঙচুর করেছে। আবার, বাইরে থেকে ইট, পাথর ছুড়ে দোতলার বিভিন্ন জানালার কাঁচ ভেঙ্গে দিয়েছে। এর সঙ্গে সঙ্গেই অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করছিল তারা। ক্লাবে ভাংচুরের সময় নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে ছাদে পালিয়ে গিয়েছিলেন ক্লাবের কেয়ারটেকারেরা। এই ঘটনাকে ক্যামেরাবন্দি করছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা পান্নালাল ঘোষ। হামলাকারীরা তাঁকে মারধর করে তাঁর মাথা ফাটিয়ে দেয় বলে অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার মাথায় ৭ টি সেলাই পড়ে। আবার ক্লাবের সিসিটিভি খারাপ থাকায় হামলাকারীদের কোন ছবি উঠেনি।

আপনার মতামত জানান -

তবে স্থানীয় বাসিন্দা পান্নালাল ঘোষ সহ বেশকিছু এলাকাবাসী এই ঘটনার ছবি ক্যামেরাবন্দি করেছেন। পুলিশ এই সমস্ত ফুটেজ সংগ্রহ করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। তবে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় বিখ্যাত ক্লাবে এমন নজিরবিহীন হামলা চলায়, তা শোরগোল ফেলে দিয়েছে এলাকাজুড়ে। কারণ এই ক্লাবের পুজো বাংলা খ্যাত, তাছাড়া এই ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত আছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও এলাকার প্রভাবশালী তৃণমূল নেতা বাপ্পাদিত্য দাসগুপ্ত।

ক্লাবে ভাংচুরের খবর জানতে পেরে গতকাল রাতে ক্লাব দেখতে এসেছিলেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বাপ্পাদিত্য দাসগুপ্ত। আজ সকালে ভাঙচুর হওয়া ক্লাব দেখতে এসেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁরা উভয়েই জানিয়েছেন যে, এই ঘটনার পেছনে রাজনৈতিক যোগ আছে কিনা? তা এখনই জোর দিয়ে বলা যাচ্ছে না। তবে তাঁরা জানিয়েছেন যে, পুলিশকে সমস্ত রকম ভাবে সহযোগিতা করা হবে। খোদ শিক্ষামন্ত্রীর ক্লাবে এই নজিরবিহীন হানায় নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এই ঘটনায় পুলিশ গেরুয়া শিবিরের যোগসাজশ থাকতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। পুলিশের সন্দেহ, এই এলাকায় তৃণমূলের ব্যাপক প্রভাব থাকায় রাজনৈতিকভাবে এখানে তেমন প্রভাব ফেলতে পারছে না গেরুয়া শিবির। এ কারণে বাইক বাহিনীকে মাঠে নামিয়ে একটা আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করার চেষ্টা করতে পারে গেরুয়া শিবির। যার ফলে আতঙ্কিত হতে পারেন এলাকাবাসী। এমন একটা সন্দেহ প্রকাশ করছে পুলিশ। এর একাধিক ফুটেজ সংগ্রহ করে হামলাকারীদের সনাক্ত করার চেষ্টা করছে পুলিশ। দোষীদের সনাক্ত করতে পারলে শুরু হবে গ্রেপ্তারের কাজ। তবে ঘটনার পিছনে কে বা কারা জড়িত রয়েছে তা এখনো পরিষ্কার হয়নি।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!