এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > শুভেন্দু-গড়ে মমতা- অভিষেকের ছবি দেওয়া ফ্লেক্স ছিড়ে রাস্তায়! শাসকদলের অন্দরে তীব্র বিতর্ক!

শুভেন্দু-গড়ে মমতা- অভিষেকের ছবি দেওয়া ফ্লেক্স ছিড়ে রাস্তায়! শাসকদলের অন্দরে তীব্র বিতর্ক!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – তৃণমূলে শুভেন্দু অধিকারী বনাম অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে একটি চাপা দ্বন্দ্ব রয়েছে বলে দাবি করে সমালোচক মহল। শুভেন্দু অধিকারী গুরুত্বপূর্ণ পদ পাবেন বলে তার অনুগামীরা আশা করলেও, তাকে সেভাবে কোনো জায়গা দেওয়া হয়নি। বরঞ্চ রাজ্য কোর কমিটির সদস্য করে রাখা হয়েছে। ফলে তার অনুগামীদের মধ্যে কিছুটা হলেও অসন্তোষ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মনে করছেন একাংশ। সেদিক থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূলের শীর্ষ স্তরে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় থাকলেও, কেন দীর্ঘদিন ধরে লড়াই করা দলকে সাফল্য পাওয়ার শুভেন্দু অধিকারী জায়গা পাচ্ছেন না, তা নিয়ে নানা মহলে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন।

সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারীর গড় পূর্ব মেদিনীপুরেও তার হাত থেকে সংগঠনের রাশ ধীরে ধীরে বিরোধী গোষ্ঠীর হাতে যেতে শুরু করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল যুব সভাপতির পদ থেকে সংগ্রাম দোলুইকে সেখানে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পার্থসারথি মাইতিকে। আর দায়িত্ব পাওয়ার পরই নিজের নাম দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং যুব তৃনমূলের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি ছবি টাঙিয়ে দেন পার্থবাবু।

জানা গেছে, হলদিয়া মেচেদা 41 নম্বর জাতীয় সড়কের সোনাপেত্যা টোলপ্লাজার কাছে এই হোডিং টাঙানো হয়েছিল। কিন্তু আশ্চর্যজনক ভাবে শুক্রবার সকালে তা ছিড়ে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। যাকে কেন্দ্র করে এখন তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে এলাকায়। কে বা কারা এই পোস্টার ছিড়ল! তা নিয়ে তৈরি হয়েছে চাঞ্চল্য। অনেকে বলছেন, যে টোলপ্লাজায় এই ঘটনাটি ঘটেছে, সেই টোলপ্লাজায় তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের নেতারা শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামী বলেই পরিচিত।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তাহলে কি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই পোস্টার ছেড়ার পেছনে শুভেন্দুবাবুর অনুগামীরা জড়িত! এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা যুব তৃনমূলের সভাপতি পার্থসারথি মাইতি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্য যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিসহ একটি হোডিং ছেড়ার ঘটনা ঘটেছে। রাতের অন্ধকারে কারা এটা করেছে দেখিনি। আমি পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে। তবে টোলপ্লাজায় সিসিটিভি রয়েছে এবং সেখানে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের শ্রমিকরা থাকেন। ওদের কাছেও খোঁজ নিচ্ছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

একাংশের মতে, শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কিছুটা হলেও মনোমালিন্য রয়েছে। সেদিক থেকে শুভেন্দুবাবুর শক্ত ঘাঁটি পূর্ব মেদিনীপুরে যুব তৃনমূলের সভাপতি পরিবর্তনের পর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়ার পর সেই ছবি ছেড়ে দেওয়ায় এখন দলের অনেকেই শুভেন্দুবাবুর অনুগামীদের দিকে আঙ্গুল তুলতে শুরু করেছেন। তবে প্রকাশ্যে এই ব্যাপারে মুখ খুলতে নারাজ সকলেই। তাই গোটা পরিস্থিতি এখন কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সত্যি সত্যিই এই ঘটনায় বিরোধীদের কেউ জড়িত নাকি দলের কেউ রয়েছেন, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!