এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > শ্রীনগরে রহস্যজনক মৃত্যু বাঙালি CRPF গ্রূপ মাস্টারের! মাথার পেছনে ৫ গুলি মেরে নৃশংস হত্যা?

শ্রীনগরে রহস্যজনক মৃত্যু বাঙালি CRPF গ্রূপ মাস্টারের! মাথার পেছনে ৫ গুলি মেরে নৃশংস হত্যা?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – কাশ্মীরের শ্রীনগরে কর্মরত সিআরপিএফ জওয়ানের অস্বাভাবিক মৃত্যকে কেন্দ্র করে সৃষ্টি হয়েছে সন্দেহ ও ধোঁয়াশার বাতাবরণ। সংবাদসূত্রে জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বসিরহাট ব্লকের বাদুড়িয়া থানার কুলিয়া নয়াবস্তি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন সাতচল্লিশ বছর বয়স্ক পিন্টূু মন্ডল। বর্তমানে তিনি শ্রীনগরের সিআরপিএফ জওয়ান গ্রূপ মাস্টার ছিলেন। ৩২ বছর ধরে দেশের বিভিন্ন সীমানায় তিনি সেনার কাজে কর্মরত থেকেছেন।

গতকাল সোমবার সেনা সেক্টর থেকে তাঁর স্ত্রী রেবা মন্ডলের কাছে তাঁর করোনায় মৃত্যুর খবর এসেছে। যা নিয়ে হতবাক তাঁর পরিবার। কারণ, তাঁর পরিবার এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, গত রবিবার রাতেই তাঁর সঙ্গে তাঁর স্ত্রীর ফোনের ভিডিও কলিং এর মাধ্যমে কথা হয়েছিল। তখন তাঁর করোনার আক্রান্ত হবার কথা জানা যায় নি, কিন্তু তার মাত্র ১২ ঘন্টার মধ্যেই তাঁর করোনার কারণে মৃত্যুর খবর আসে। কিন্তু এতো অল্প সময়ের মধ্যে করোনা পসিটিভ হবার রিপোর্ট আসা একপ্রকার অসম্ভব।

তাঁর পরিবার অভিযোগ করেছেন , করোনা নয় তাঁর মাথার পেছনে পাঁচটি গুলি করে তাঁকে হত্যা করেছে তাঁর সহকর্মীরা। কারণ, তাঁর মাথার পেছনে ও তাঁর হাতে ব্যান্ডেজ পাওয়া গেছে, পোশাকে পাওয়া গেছে রক্তের দাগ। তাঁর পরিবার সূত্রে দাবি, তিনি যদি করোনা আক্রান্ত হয়েই মৃত হয়ে থাকেন, তবে এতো অল্প সময়ে তাঁর করোনার রিপোর্ট আসা যেমন সম্ভব না, তেমনি সম্ভব না মাথায়, হাতে ব্যান্ডেজ ও পোশাকের রক্তের দাগ। তাই পুরো বিষয়টি রয়েছে ধোঁয়াশার মধ্যে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

তাঁর স্ত্রী দাবি করেছেন যে, তাঁকে পরিকল্পিত ভাবে খুন করে করোনা আক্রান্ত বলে চালিয়ে দেবার চেষ্টা করছে তাঁর সহকর্মীরা ও তাঁর মৃতদেহ বাড়ির লোকের কাছে দিচ্ছে না। তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে যে, অফিসিয়ালি গুরুত্বপূর্ণ বেশকিছু নথিপত্র নিয়ে অফিসের সঙ্গে তাঁর কয়েকমাস ধরে ঝামেলা চলছিল, তার জেরেই খুন করা হয়েছে তাঁকে। এ প্রসঙ্গে তাঁর স্ত্রী আরও জানিয়েছেন, তাঁর সহকর্মী সুরজিৎ সিং, জয় চন্দন, সালমান, মুখরাম প্রমুখরা তাঁকে পরিকল্পনা মাফিক গুলি করে খুন করেছেন। এই সহকর্মীদের সঙ্গে তাঁর শত্রূুতার কথা তিনি আগেই তাঁর বাড়িতে জানিয়েছিলেন।

এই ঘটনার উচ্চ বিচারবিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছে তাঁর পরিবার। তাঁর অকস্মাৎ মৃত্যুর ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে তাঁর পরিবারে ও তাঁর এলাকায়। সেই সঙ্গে এই ঘটনায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তাঁর পরিবার ও এলাকাবাসী। ৩২ বছর ধরে সেনাবাহিতে কর্মরত সিআরপিএফ জওয়ান তথা গ্রূুপ মাস্টারের এই অকাল প্রয়াণ মেনে নিতে পারছেন না কেউই। প্রসঙ্গত, গত একমাস আগেই তাঁর ছুটি নিয়ে বাড়ি ফেরবার কথা ছিল। কিন্তু লকডাউনের ফলে বিমান পসিসেবা বন্ধ থাকায়, তিনি বাড়ি ফিরতে পারেননি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!