এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বরাবাজারে প্রভাবশালী তৃণমূল নেত্রীর গাড়িতে গুলি, তীব্র চাঞ্চল্য এলাকায়

বরাবাজারে প্রভাবশালী তৃণমূল নেত্রীর গাড়িতে গুলি, তীব্র চাঞ্চল্য এলাকায়



অনেকেই ভেবেছিলেন পঞ্চায়েতের মত হয়ত পঞ্চায়েত সমিতির বোর্ড গঠনে আর এত সন্ত্রাস দেখবে না বাংলা। কিন্তু না! এবারে সেই সমস্ত কিছুকে মিথ্যে করে এইবারে সেই পঞ্চায়েত সমিতির বোর্ড গঠনের আগের রাতে বরাবাজারে গুলি চলায় চরম চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হল এলাকায়।

সূত্রের খবর, বরাবাজারের রাজাপুরের বাসিন্দা তৃনমূলের জেলাপরিষদের সদস্যা সুমিতা সিং মল্ল এবার মানবাজার 2 ব্লকের জেলাপরিষদের আসন থেকে জয়লাভ করেছেন। গত সোমবার রাত সাড়ে 11 টার সময় বাড়ি ফেরেন তিনি। আর এরপরই মঙ্গলবার সকালে দেখতে পান যে তাঁর স্করপিও গাড়ির পেছনের কাচ দিয়ে কেউ গুলি ছুড়েছে। তবে শুধু গাড়ির কাঁচেই নয়, বারান্দাতেও এই গুলি ছোড়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সুমিতা সিং মল্ল।

আর এরপরই বরাবাজার থানা এবং জেলার পুলিশ সুপারকে বিষয়টি জানালে এসডিপিও সহ একাধিক পুলিশ কর্তা সেই তৃনমূল নেত্রীর বাড়িতে গিয়ে ঘটনার তদন্ত করেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় ঠিক কে দোষী তা খুঁজে বের করতে পারেনি পুলিশ।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগেও তৃনমূলের নেত্রীর বাড়িতে একাধিক বার হামলা হয়েছে। 2013 সালে দুস্কৃতিদের ছোড়া বোমায় তার বাড়ির গেট উড়ে গিয়েছিল। এমনকী পঞ্চায়েতের আগে স্বামীকেও হারিয়েছেন তিনি। যে ঘটনায় অভিযুক্ত হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপি দলেরই নাম।

জানা যায়, এই সুমিতা সিং মল্লর পাশাপাশি তাঁর ছেলে এবার পঞ্চায়েতের জয়ী সদস্য এবং ভাইপো বরাবাজার ব্লকের যুব তৃনমূলের সভাপতি। তাহলে কি শাসকদলের প্রভাবশালী নেত্রী  বলেই বারবার এরূপ আক্রমন নেমে আসছে এই সুমিতা সিং মল্লর ওপর। এ প্রসঙ্গে এদিন তৃনমূলের এই দাপুটে নেত্রী বলেন, “বরাবিজার পঞ্চায়েত সমিতির বোর্ডের সভাপতি পদ ঘিরে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে। তাই সেদিক থেকে তৃনমূলের মনোযোগ ঘুরিয়ে দিতেই আমার ওপর গুলি চালানোর চেষ্টা হয়েছে।”

কিন্তু ঠিক কে চালাল এই গুলি? সেই ঘটনার পূর্নাঙ্গ তদন্তে নেমে অভিযুক্তদের খুঁজে পেতে মরিয়া পুলিশ প্রশাসনও। সব মিলিয়ে পঞ্চায়েত সমিতির বোর্ড গঠনেও আতঙ্ক অব্যাহত বরাবাজারে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!