এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > আমপানের কমিশন সরাসরি ঢুকে যাচ্ছে অভিষেক ব্যানার্জীর ঘরে, বিস্ফোরক অভিযোগে ঝড় তুললেন সৌমিত্র

আমপানের কমিশন সরাসরি ঢুকে যাচ্ছে অভিষেক ব্যানার্জীর ঘরে, বিস্ফোরক অভিযোগে ঝড় তুললেন সৌমিত্র



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বর্তমানে বাংলায় পাল্লা দিয়ে চড়ছে রাজনৈতিক উত্তেজনার পারদ। সম্প্রতি উত্তর 24 পরগনার সন্দেশখালি সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে বিজেপি ও তৃণমূলের সংঘাত চরম আকার ধারণ করেছে বলে মনে করা হচ্ছে। রাজনৈতিক মহলেও এই নিয়ে চলছে জোর চাপানউতোর। আমফান পরবর্তী সময়কাল থেকে ত্রাণ বিলি নিয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আসছে বিরোধী দলগুলি। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে ত্রাণ বিলি নিয়ে প্রশাসনের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত ক্ষোভের ঘটনাও চোখে পড়ছে।

অন্যদিকে ত্রাণ বিলি নিয়ে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে রাজ্য প্রশাসন বলে জানা গেছে। এই পরিস্থিতিতে শনিবার সন্দেশখালিতে আমফানের ক্ষতিপূরণ চাওয়া নিয়ে চূড়ান্ত গন্ডগোল শুরু হয়। রাতের অন্ধকারে তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষ ব্যাপক আকার ধারণ করে বলে জানা গেছে। এবং এই ঘটনায় এবার বিজেপির রাজ্য যুব সভাপতি সৌমিত্র খাঁ কড়া মন্তব্য করলেন রাজ্যের প্রশাসনের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে। সন্দেশখালির ঘটনা‍য় জখম বিজেপি কর্মীদের দেখতে আসেন এদিন রাজ্য বিজেপি যুব সভাপতি।

আর সন্দেশখালি থেকেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর দিকে স্বজনপোষণের অভিযোগ করলেন। তাঁর মতে, রাজ্যে প্রশাসনের আইনি ব্যবস্থা পুরোপুরি ভেঙ্গে পড়েছে। রাজ্য প্রশাসন সাধারণ মানুষের ওপর অত্যাচার চালাচ্ছে। খাবার চাইতে গেলে প্রশাসনের নির্দেশে সাধারণ মানুষের ওপর গুলি চলছে। পাশাপাশি এদিন সাধারণ মানুষকেও তিনি তৃণমূল সরকারকে শাসকের পদে বসানোর জন্য যথেষ্ট ভর্ৎসনা করেছেন বলে জানা গেছে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সন্দেশখালি ঘটনায় অভিযুক্ত হিসেবে নাম আসছে সামনে শাহজাহান শেখের। স্থানীয় বিজেপি সূত্রে খবর, এই শাহজাহান শেখ রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থাকা একজন অপরাধী। এদিন সৌমিত্র খাঁ তীব্র শ্লেষের সাথে বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কারণেই রাজ্যজুড়ে পঞ্চায়েত ভোট হয়নি এবং ত্রাণ বিলি নিয়ে যে গন্ডগোল হচ্ছে, তার পেছনেও রাজ্য সরকার। ত্রাণ নিতে গেলে সাধারণ মানুষকে কমিশন দিতে হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি এবং এরপর তিনি অভিযোগ তোলেন, এই কমিশন সরাসরি ঢুকে যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো অভিষেক ব্যানার্জীর ঘরে।

অন্যদিকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সন্দেশখালির ঘটনায় তাঁদের পক্ষ থেকে কেউ যুক্ত নেই। গণ্ডগোলের সূত্রপাত বিজেপির হাত ধরেই হয়েছে। তবে বেশ কিছুদিন ধরেই আমফানের ত্রাণ বিলি নিয়ে রাজ্য প্রশাসন যথেষ্ট কড়া মনোভাব দেখিয়েছেন বলে মত বিশেষজ্ঞদের। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজনকে ত্রাণ দুর্নীতির কারণে শোকজ করা হয়েছে বলে খবর। অন্যদিকে, সন্দেশখালির ঘটনায় ইতিমধ্যে কাউকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। তাই নিয়েও বিজেপি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। আপাতত পরিস্থিতির ওপর নজর রাখতে চলেছে রাজ্যের ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!