এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সারদা-কাণ্ডে আমানতকারীদের জন্য বড়সড় সুখবর, যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে হাইকোর্ট!

সারদা-কাণ্ডে আমানতকারীদের জন্য বড়সড় সুখবর, যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে হাইকোর্ট!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সারদা চিটফান্ড কাণ্ডে সর্বস্ব হারিয়ে বিপদে পড়েছেন রাজ্যের বহু মানুষ। ইতিপূর্বে, কমিশন করে তাদের টাকা ফিরিয়ে দেবার চেষ্টা হলেও, সেকাজ খুব বেশিদূর এগোতে পারেনি। এবার সারদা কাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে এক বিশেষ কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। তবে এ বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। আগামী ২৯ সে জুন এ বিষয়ে শুনানি রয়েছে।

ইতিপূর্বে, সারদাকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত আমানতকারীদের অর্থ ফিরিয়ে দিতে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এক কমিশন গঠন করা হয়েছিল। শ্যামল সেন কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী ছোট আমানতকারীদের ৫০ কোটি টাকা ফেরানো হয়েছিল। তবে, শ্যামল সেন কমিশনের রিপোর্ট এখনো কেন কলকাতা হাইকোর্টের রেজিস্টার জেনারেলের কাছেই কেন পড়ে আছে? তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট এর ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দাল। আবার এই কমিশনের মেয়াদ শেষ হবার পরও ১৩৮ কোটি টাকা বাকি পড়ে ছিল। যা নিজের প্রয়োজনে ব্যাবহার করেছে রাজ্য। সে অর্থ কেন আমানতকারীদের দেয়া হয়নি? সে প্রশ্নও করেছে আদালত।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আবার, ইতিপূর্বে হাইকোর্টের বিচারপতি শৈলেন্দ্র প্রসাদ তালুকদারের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল। যার দ্বারা এমপিএসের সম্পত্তি বিক্রি করে আমানতকারীদের টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে,পরে আদালতের বিচারপতি অনিরুদ্ধ বসু ও বিচারপতি জয়মাল্য বাগচির ডিভিশন বেঞ্চ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে, শুধু এমপিএস নয়, সমস্ত চিটফান্ডের ক্ষতিগ্রস্থ আমানতকারীদের টাকা দিয়ে দিতে হবে। আর একাজ করবে তালুকদার কমিটি। তবে, এ বিষয়েও খুব বেশিদূর কাজ হয়নি।

তাই এবার এক সদস্যের একটি কমিটি গঠনের চিন্তা-ভাবনা রয়েছে আদালতের। এদিকে, বিভিন্ন চিটফান্ড কাণ্ডের তদন্তে সিবিআই বহু সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে। এই সমস্ত সম্পত্তি ও নগদ অর্থ আদালতে গঠিত নতুন কমিটির কাছে পাঠানোর নির্দেশ দিতে পারে আদালত। আগামী ২৯ সে জুন এ বিষয়ের শুনানি রয়েছে। তবে, কবে আমানতকারীদের টাকা পাঠানো হবে? কার নেতৃত্বে এই কমিটি গঠন করা হবে? সে বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি আদালত।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!