এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাতে চলেছেন মমতা? মুখোমুখি হতে হবে আস্থা ভোটের? দিনক্ষণ ‘ফাঁস’ বিজেপি নেতার

সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাতে চলেছেন মমতা? মুখোমুখি হতে হবে আস্থা ভোটের? দিনক্ষণ ‘ফাঁস’ বিজেপি নেতার



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যের আগামী বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইটি মূলত তৃণমূল ও বিজেপি লড়াই। এই পরিস্থিতিতে আগামী ডিসেম্বর মাসের শুরু থেকেই কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনের ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, জাতীয় রাজনীতিতে কেন্দ্র বিরোধী মুখ হিসেবে ইতিমধ্যেই সুবিদিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তৃণমূলের এই কেন্দ্র বিরোধী আন্দোলনকে তীব্রভাবে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ শহরে চা চক্র থেকে তিনি জানালেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কত দিন মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন? তা নিয়ে সন্দেহ আছে তাঁর।

এদিকে গতকাল শুক্রবার মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। এরপর গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়িতে বিশেষ বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সী, ফিরহাদ হাকিম, অরূপ বিশ্বাস প্রমুখরা। দলের আগামী দিনের পরিকল্পনা নিয়ে বৈঠকে আলোচনার হলো। এই সঙ্গে বৈঠকে এক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো। আগামী ১ লা ডিসেম্বর থেকে রাজ্যের সমস্ত ব্লকে আন্দোলনের কর্মসূচি গ্রহণ করতে নির্দেশ দেয়া হল জেলা তৃণমূল সভাপতিদের। আবার, আগামী ৭ ই ডিসেম্বর থেকে মুখ্যমন্ত্রী নিজেই রাস্তায় নামবেন বলে জানা গেলো। প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর দায়িত্বে থাকা মালদহ, মুর্শিদাবাদ, পশ্চিম মেদিনীপুর, পুরুলিয়া জেলাকে দিয়ে জেলা সফর শুরু করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আজ সকালে রায়গঞ্জের চা-চক্রে এই বিষয়ে আলোচনা করতে গিয়ে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু জানালেন যে, আগামী ৭ ই ডিসেম্বরের আগেই সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাতে চলেছে তৃণমূলের নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকার। তিনি দাবি করেছেন যে, একমাত্র পিসি ও ভাইপো ছাড়া তৃণমূলে আর কেউই থাকবেন না। এ কারণেই ৭ ই ডিসেম্বরের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর মুখ্যমন্ত্রী থাকতে পারবেন কিনা? তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করতে দেখা গেল তাঁকে। তিনি জানালেন যে, এরপরই রাজ্যপালের নির্দেশে মুখ্যমন্ত্রী আস্থাভোট ডাকতে বাধ্য হবেন। কারণ, মুখ্যমন্ত্রী নিজে কখনোই আস্থাভোট ডাকবেন না।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, দুদিন আগেই ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং জানিয়েছিলেন যে, তৃণমূলের ৫ জন সাংসদ বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছেন। অন্যদিকে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু জানিয়েছিলেন যে, তৃণমূলের অন্তত ২৪ জন বিধায়ক যোগাযোগ রাখছেন বিজেপির সঙ্গে। যেভাবে পরিস্থিতি বদলাচ্ছে, তাতে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তৃণমূল সরকার সংখ্যালঘু হয়ে পড়বে। তৃণমূল সরকারের পায়ের তলার মাটি একটু একটু করে সরে যাচ্ছে বলে দাবি করেছিলেন তিনি। তাঁর এই দাবির পরই গতকাল শুক্রবার মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। আবার গতকালই দিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূল সাংসদ মিহির গোস্বামী।

প্রসঙ্গত, বাঁকুড়া সফরের সময় মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের জন্য একটি নতুন প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন। যে প্রকল্প হল ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প। আগামী ১ লা ডিসেম্বর থেকেই এই প্রকল্প শুরু হওয়ার কথা। রাজ্য সরকারের এই প্রকল্পকে নিয়েও ব্যঙ্গ করেছিলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। বলেছিলেন যে, মরনকালে হরিনাম। তিনি প্রশ্ন করেছিলেন যে, এতদিন কি সরকার তাহলে আকাশে ছিল? তিনি আরো জানিয়েছিলেন যে, আকাশ থেকে নেমে দুয়ারে যেতে যেতেই নির্বাচনের ঘোষণা হয়ে যাবে। সেই সঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছিলেন যে, সরকার দুয়ারে দুয়ারে গেলেই সাধারণ মানুষ কাটমানির হিসেব যেমন চাইবেন, তেমনি চাইবেন আইন-শৃঙ্খলার হিসেব। আজ রায়গঞ্জের চা চক্র থেকে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু রাজ্য সরকারের স্থায়িত্ব সম্পর্কে সন্দেহ প্রকাশ করে জল্পনা বাড়িয়ে দিলেন বহুগুণে।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!