এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > “সাধারণ কর্মীরা দলের পাশে নেই, তাই তারকা প্রার্থী দিয়ে ভোটে জেতার চেষ্টা করছে তৃণমূল।” কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

“সাধারণ কর্মীরা দলের পাশে নেই, তাই তারকা প্রার্থী দিয়ে ভোটে জেতার চেষ্টা করছে তৃণমূল।” কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – গতকাল প্রকাশিত হয়েছে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা। এবার তৃণমূলে বহু তারকা প্রার্থীর আনাগোনা, বাদ পড়েছেন বহু বিধায়ক। আজ এই বিষয় নিয়ে শাসকদল তৃণমূলকে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এ প্রসঙ্গে তিনি জানান, তৃণমূলের সাধারণ কর্মীরা দলের পাশ থেকে সরে পড়েছেন, এ কারণেই তারকা প্রার্থী দিয়ে ভোটে জেতার চেষ্টা করছে তৃণমূল।

আজ পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়্গপুর শহরে প্রাতঃভ্রমণ ও চা চক্রে যোগদান করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আজ চা চক্র থেকে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আজ একেবারে খোল, কর্তাল বাজিয়ে কৃষ্ণ নাম গেয়ে চায়ের আসর মাতিয়ে দিলেন তিনি। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানালেন, তৃণমূল দলটা একসময় তার কর্মীদের উপর নির্ভর করে ক্ষমতা দখল করেছিল।

কিন্তু আজ দলের কর্মীদেরই ভুলে গেছে দল। আজকে তাই তারকাদের দলে আনা হচ্ছে। এই দল সাধারণ মানুষের জন্য কিছুই করেনি। জনগণ এই দলের পাশ থেকে সরে গেছে, তাই তারকা দিয়ে ভোটে জেতার অপচেষ্টা শুরু করেছে তৃণমূল। তৃণমূল সাংসদ ও অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায় সম্পর্কে তিনি জানালেন যে, পাঁচ বছর ধরে তাঁকে কেউ দেখতে পায়নি। তৃণমূল এবার বেশিরভাগ জেলা কেন্দ্রগুলোতে তারকা প্রার্থী দাঁড় করিয়েছে। তিনি জানালেন বিজেপি যা করবে সেটাই চমক।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, নির্বাচনের টিকিট না পেয়ে দলের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়েছেন দলের বেশ কিছু হেভিওয়েট নেতৃত্ব। মোট ৬৪ জন বিধায়ককে প্রার্থী তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তালিকা ঘোষণার পর কেউ বিক্ষোভ দেখিয়েছেন, কেউ অবরোধ করেছেন কেউ বা কেঁদে ফেলেছেন, কেউ আবার যোগাযোগ করেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের সঙ্গে। এই বিষয়গুলি নিয়েও তৃণমূলকে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানালেন যে, রাজ্যের স্থানে স্থানে তৃণমূলের পার্টি অফিস ভাঙচুর করছেন তৃণমূলের কর্মীরা। তৃণমূলের সদস্যর দল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন, বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। সবে, তো খেলা শুরু হয়েছে। বস্তুত, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা থেকে বাদ যাবার পর দলের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে বেশ কিছু নেতা দল ছেড়েছেন, কেউ দল ছাড়ার হুমকি দিয়ে রেখেছেন।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!