এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন! এবার ভারতেও শুরু হবে ট্রায়াল, অতিমারি থেকে বাঁচতে বাড়ছে আশার আলো!

রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিন! এবার ভারতেও শুরু হবে ট্রায়াল, অতিমারি থেকে বাঁচতে বাড়ছে আশার আলো!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – করোনা পরিস্থিতিতে সারা বিশ্বে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য চলছে চরম প্রস্তুতি। সপ্তাখানেক আগে জানা গেছিলো, ভারতবর্ষ তৈরি করে ফেলেছে করোনার ভ্যাকসিন। যার নাম রাখা হয়েছে কোভ্যাকসিন। আইসিএমআর এবং ন্যাশনাল ভাইরোলজি ইনস্টিটিউটের যৌথ প্রচেষ্টায় তৈরি হওয়া এই ভ্যাকসিন এর টিকা প্রয়োগ ইতিমধ্যে বহু মানুষের মধ্যে শুরু করা হয়েছে জানা গেছে।

এবার সেই তালিকায় উঠে এসেছে রাশিয়ার নাম। রাশিয়ার সরকার জানিয়েছেন যে তাঁরাও তৈরী করে ফেলেছেন করোনা প্রতিষেধক। ভারতের মতো যার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া প্রায় নেই বললেই চলে। স্বভাবতই যে দেশ এই ভ্যাকসিন আবিষ্কার করবে, তাদের অর্থনীতিতে বেশ সুবিধে হবে বলে ধারণা অনেকের। আর রাশিয়ার এহেন মন্তব্যের পরই শুরু হয়েছে জল্পনা।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

চূড়ান্ত পর্যায়ে ট্রায়াল সম্পূর্ণ না হলেও ইতিমধ্যে অনেক দেশই যে এই ভ্যাকসিন কিনতে আগ্রহী হয়েছে সে বিষয়ে সন্দেহ নেই। রাশিয়ার আরডিআইএফ এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে ইতিমধ্যে কুড়িটি দেশের প্রায় ১০০ কোটি ভ্যাকসিন তৈরীর প্রস্তাব পেয়েছেন তারা। তবে তাদের মতে ৫০ কোটি ভ্যাকসিন তৈরির জন্য আপাতত রাশিয়া প্রস্তুত আছে।

সেক্ষেত্রে বিভিন্ন দেশে ভ্যাকসিনের প্রয়োগ কিভাবে শুরু হবে সে নিয়ে কথা শুরু হলে জানা যায় ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য পাঁচটি দেশকে বেছে নেওয়া হয়েছে। সে ক্ষেত্রে বিভিন্ন পরিবেশ পরিস্থিতিতে বিভিন্ন মানুষের ওপর এই ট্রায়াল পর্ব চালানো হবে। এই দেশ গুলির মধ্যে রয়েছে ব্রাজিল, আমিরশাহী, সৌদি আরব, ফিলিপিনস এবং ভারতবর্ষের নাম। তবে সেপ্টেম্বরের আগে কোনভাবেই এই ভ্যাকসিন তৈরী শুরু করা সম্ভব নয় বলে জানানো হয়েছে সংস্থার তরফ থেকে।

তবে এ বছরের শেষ পর্যন্ত কুড়ি কোটি টাকার ভ্যাকসিন তারা বিভিন্ন দেশের জন্য তৈরি করতে পারবে বলে জানানো হয়েছে। রাশিয়ার ক্ষেত্রে আরও তৈরি হবে ৩০ কোটি ভ্যাকসিন। তবে এই ট্রায়াল কতটা সফল হবে বা সফল হলেও, সাধারণ মানুষ যে কিভাবে এর সদ্ব্যবহার করতে পারবেন বা কতটাই বা সাধারণ মানুষের কাছে এটি সহজলভ্য হবে সে বিষয়ে এখনও যথেষ্ট ধোঁয়াশা রয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!