এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সরকার বিরোধী জোটে বড় ধাক্কা, ফায়দা তুলবে শাসকদল

সরকার বিরোধী জোটে বড় ধাক্কা, ফায়দা তুলবে শাসকদল



সরকার বিরোধী আন্দোলনে জোট ধর্ম অক্ষুণ্ণ থাকলো না বিরোধী দলের। ফলস্বরূপ তৈরী হয়েছে ভোটের ভাগাভাগির সম্ভবনা। আর এতে করে মেঘ না চাইতেই জলের মতো কোনো কসরত না করেই সুবিধাজনক অবস্থানে রাজ্যের শাসক দল। ডাক্তারদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সমগ্র ঘটনা তৈরী হয়েছে । জানা যাচ্ছে আগামী ২০ শে জুলাই থেকে ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিক্যাল কাউন্সিলের নির্বাচন। এই নির্বাচন চলবে অগাষ্ট মাসের ২০ তারিখ অবধি। তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থিত ডাক্তারদের প্যানেলকে পরাজিত করে কিস্তি মাত করার লক্ষ্যে ডাক্তারদের পাঁচটি সংগঠনের প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

একই লক্ষ্যে মঙ্গলবার মনোনয়ন পত্র পেশ করেছে ডাক্তারদের অন্য দুই সংগঠনের পৃথক প্যানেল। প্রসঙ্গতঃ এদিন ছিলো মনোনয়ন পত্র পেশের শেষ দিন। উল্লেখ্য বিগত একবছর যাবত ডাক্তারদের এই সাতটি সংগঠনের বিভিন্ন সময় সরকার বিরোধী যৌথ আন্দোলনে শামিল হওয়ার ইতিহাস রয়েছে। কিন্তু, ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিক্যাল কাউন্সিলের নির্বাচনে এই জোট ধর্ম অক্ষুণ্ণ রইলো না। মনোনয়ন পত্র পেশের শেষ দিনে সরকারি ডাক্তারদের সংগঠন সার্ভিস ডক্টরস ফোরাম এবং সরকারি-বেসরকারি ডাক্তারদের সংগঠন মেডিক্যাল সার্ভিস সেন্টার যৌথভাবে মনোনয়ন পত্র পেশ করেছে বলে জানা গিয়েছে। অবশিষ্ট পাঁচটি সংগঠনের মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টরস ফোরাম, শ্রমজীবী স্বাস্থ্য উদ্যোগ, ডক্টরস ফর ডেমোক্র্যাসি এবং হেলথ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন, ওয়েস্ট বেঙ্গল আর অ্যাসোসিয়েশন অফ হেলথ সার্ভিস ডক্টরস।

 

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই পাঁচটি সংগঠনের ডাক্তারদের প্যানেলের নেতৃত্বে রয়েছেন ওয়েস্ট বেঙ্গল ডক্টরস ফোরামের সভাপতি ডাক্তার রেজাউল করিম। সাতটি সংগঠনের জোট ভেঙে যাওয়া প্রসঙ্গে এদিন ডাক্তার রেজাউল করিম কে প্রশ্ন করা হয়। তাঁর কাছে জানতে যাওয়া হয় যে জোট ভেঙে যাওয়ার ফলে কি শাসকদল সমর্থিত ডাক্তারদের প্যানেল বাড়িতি সুবিধা পেয়ে যাবে? জবাবে তিনি বললেন, ”ঐক্য বিরোধী কাজ। তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থিত ডাক্তারদের শক্তিশালী করা হল।”অন্যদিকে একই প্রশ্নের উত্তরে সার্ভিস ডক্টরস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক, ডাক্তার সজল বিশ্বাস বিশদে ব্যাখ্যা করে বললেন , ”অংকের দিক থেকে মনে হতে পারে ভোট ভাগ হয়ে যাবে। কিন্তু, নৈতিকতার দিক থেকে হবে না। যে প্যানেলকে যথার্থ মনে করবেন, সেই প্যানেলকেই ভোট দেবেন ডাক্তাররা।”

আপনার মতামত জানান -

Top
Facebook Friends
error: Content is protected !!