এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের নামে দুর্নীতিতে শাসকদলকে অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ

উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের নামে দুর্নীতিতে শাসকদলকে অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ

Priyo Bandhu Media


উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন নিয়ে সরব হলেন বর্তমান উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। এদিন কৌশলে তিনি উত্তরবঙ্গের প্রাক্তন উন্নয়ন মন্ত্রী গৌতম দেবের সময় ঘটে যাওয়া নানান প্রকল্পের টাকার নয়ছয় এবং অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন। একই সাথে তিনি জানিয়ে দেন তাঁর আমলে এই সব কিছুকে তিনি বরদাস্ত করবে না। তাঁর ভাষায়, আমার জমানায় এসব নিয়ে আপোষ নয়। অন্যায়, দুর্নীতি, অনিয়ম, বেনিয়মে দল, রং, ভাষা বিবেচ্য নয়। রবীন্দ্রনাথবাবুর অভিযোগ, রাজ্যে শাসকদলের পরিবর্তনের পর উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের জন্য করা হয়েছিল উন্নয়ন দফতর। কিন্তু সেই দফতরের দেখা যাচ্ছে প্রায় ১৮-২০ টি প্রকল্পে রয়েছে প্রায় ৪৫ কোটি টাকার হিসাবের পার্থক্য। অভিযোগের তীর তিনি গৌতমবাবুর দিকে তুলে বলেন তাহলে কি তাঁর আমলেই এত কিছু ঘটেছে? তিনি এর প্রকৃত কারণ জানতে চেয়ে বলেন, আমি তখন মন্ত্রীই ছিলাম না। তাই কেন, কীভাবে ভুল হল, কেন এসব সামনে এল না তা জানা নেই। কিন্তু, আমার আমলে এসব প্রশয় দেব না। কাজের ক্ষেত্রে দল, রং, ভাষা দেখব না।
এদিন তিনি বলেন,প্রতিটি প্রকল্পকে তিনি ধরে ধরে চিহ্নিত করে ঠিকাদারদের ভুল ত্রুটিকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছেন। তাঁদের তিনি বেশ কড়া ভাষায় ভুলগুলিকে দ্রুত সংশোধনের কথাও বলেছেন। শাস্তি দেবার পক্ষপাতী তিনি নন। তিনি শুধু জনগণের টাকা দিয়ে তৈরী প্রকল্পের কাজগুলিকে ঠিক করে বুঝে নিতে চান। দফতর সূত্রের খবর, সকল ঠিকাদারদের কাছ থেকে বর্তমান উন্নয়ন মন্ত্রী লিখিত প্রতিশ্রুতি নিয়েছেন। এরপরও তাঁদের কাজের মধ্যে ত্রুটি দেখা যাচ্ছে কিনা তা নজর রাখা হবে। সূত্রের খবর, চিহ্নিত ঠিকাদারদের কেউ কেউ শিলিগুড়িতে শাসকদলের নেতা বা জেলা নেতৃত্বের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। ফলে প্রকাশ্যে বর্তমান মন্ত্রীর এই বক্তব্যে আসলে দুই মন্ত্রীর কাজিয়াই ফের সামনে এল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!