এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কংগ্রেসকে মাত দিতেই কি ফের দলের কমান্ডকে আমন্ত্রণ পত্র পাঠালো আরএসএস? জল্পনা তুঙ্গে

কংগ্রেসকে মাত দিতেই কি ফের দলের কমান্ডকে আমন্ত্রণ পত্র পাঠালো আরএসএস? জল্পনা তুঙ্গে



যে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘ’কে কটাক্ষ করার কোনো সুযোগ হাতছাড়া করেননা,কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, যাদের সাথে সম্পর্কটা ঠিক বিপরীত মুখী  সেই আরএসএস’র অনুষ্ঠানেই আমন্ত্রণ পেলেন তিনি। আগামী মাসের ১৭ থেকে ১৯ তারিখ দিল্লীতে আয়োজিত আরএসএসের পরবর্তী সমাবেশের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য কংগ্রেস সভাপতিকে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য  হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের এই অনুষ্ঠাণে শুধু কংগ্রেস সভাপতিকেই আমন্ত্রন জানানো হয়েছে এমন নয় আমন্ত্রন তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হয়েছেন সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি সহ অন্যান্য বাম নেতাও। তবে রাজনৈতিক মহলের মতে কংগ্রেস সভাপতিকে এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রন জানানো যে নেহাতই সৌজন্য মূলক নয় সে প্রসঙ্গে নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল। বরং তাদের মতে এই আমন্ত্রনের পশ্চাতে রয়েছে রাজনৈতিক বিচক্ষণতা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রসঙ্গত চলতি বছরেই প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানিয়ে দেশের রাজনৈতিক পরিবেশে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলো  আরএসএস। জুন মাসে আয়োজিত সেই অনুষ্ঠানে আরএসএস সভাপতির ভূয়সী প্রশংসা করেন প্রবীন এবং অভিজ্ঞ এই কংগ্রেস নেতা। যা নিয়ে বিস্তর জল্পনা শুরু হয়। এবার অন্য কেউ নয় স্বয়ং হাত শিবিরের সভাপতিকে আমন্ত্রণ করে চাঞ্চল্য ছড়ালো এই সংগঠন। তবে এই অনুষ্ঠানে রাহুল গান্ধী আদৌ উপস্থিত হবেন কি না সেই বিষয়ে কংগ্রেসের তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তবে রাজনৈতিকমহলের প্রশ্ন কি চাইছে আরএসএস ? রসিকতা নাকি অনেক বড় কারণ লুকিয়ে আছে এর মধ্যে। নাকি সোউজানবাসতোই এই আমন্ত্রণ পত্র ?

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!