এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > এবার বাংলা জুড়ে আরএসএসের বিরুদ্ধে গোপনে অস্ত্র প্রশিক্ষণের বিস্ফোরক অভিযোগ

এবার বাংলা জুড়ে আরএসএসের বিরুদ্ধে গোপনে অস্ত্র প্রশিক্ষণের বিস্ফোরক অভিযোগ

Priyo Bandhu Media


কলকাতার এক নামী সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী এবার ভয়ঙ্কর অভিযোগ রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ বা আরএসএসের বিরুদ্ধে। আরএসএস নাকি বাংলা জুড়ে অতি গোপনে অস্ত্র প্রশিক্ষণ দিচ্ছে, তবে অস্ত্র বলতে তরোয়াল বা ছোরা, কোনও আগ্নেয়াস্ত্র নয়। শুধু অস্ত্র প্রশিক্ষণই নয়, একটি ‘বিশেষ সামাজিক কারণের’ জন্য ‘বিশ্বাসীরা’ ব্যক্তিগত উদ্যোগে অস্ত্র কিনছেনও। ওই সংবাদপত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে, পুজোয় বিজয়ার পরদিন সারা দেশ জুড়েই আরএসএস কর্মী-সদস্যরা অস্ত্রপূজন করেন আর এবার বাংলাতেও এই অস্ত্রপূজন হয়েছে।
আর এ বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর অস্ত্রপূজনের পর ১৫-১৬ জন অস্ত্র প্রশিক্ষণ নেন সমীর চক্রবর্তী বলে এক ব্যক্তির বাড়িতে। যাঁরা সেদিন প্রশিক্ষণ নেন, তাঁদের কয়েকজন কেন্দ্র বা রাজ্য সরকারি কর্মচারী (ফলে, কেউই প্রশিক্ষণ নেওয়ার ছবি তুলতে রাজি হননি) বলেও ওই খবরে দাবী করা হয়েছে। আর এই অস্ত্র প্রশিক্ষণের খবর পেয়ে কলকাতার গোয়েন্দা পুলিস এ নিয়ে সুব্রত গুপ্তর (যিনি গো-সুরক্ষা সেলের সভাপতি) সঙ্গে কথা বলে। সেখান থেকে জানা যায়, সুব্রত বাবু দাবী করেছেন, সামাজিক কারণ আছে মনে হলে আমরা অস্ত্র হাতে তুলে নেব। প্রতিরোধের জন্য আমরা অস্ত্র ব্যবহার করব। এ জন্য প্রশিক্ষণ নিতে হবে। যদিও ‘সামাজিক কারণের’ যথাযথ ব্যাখ্যা নাকি সুব্রত বাবুর কাছ থেকে পাওয়া যায় নি। যদিও এই খবরের সত্যতা প্রিয়বন্ধু বাংলার তরফে যাচাই করে দেখা সম্ভব হয় নি। এই প্রবন্ধ সম্পূর্ণরূপে ওই সংবাদমাধ্যমের খবরের পরিপ্রেক্ষিতে লেখা, কোনোমতেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় বা কোনো ব্যক্তি বা দলের সম্মানহানির উদ্দেশ্যে রচিত নয়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!