এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > “রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মত লড়ি, ধমকানিতে ভয় পাই না” এনআরসি নিয়ে বিজেপিকে বড় প্রশ্ন মমতার!

“রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মত লড়ি, ধমকানিতে ভয় পাই না” এনআরসি নিয়ে বিজেপিকে বড় প্রশ্ন মমতার!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নির্বাচনী প্রচার ক্রমশ জমে উঠছে। চতুর্থ দফার নির্বাচনে বেশকিছু অশান্তির ঘটনা সামনে এসেছে। তবে পঞ্চম দফার নির্বাচনের প্রচারকে কেন্দ্র করে রীতিমত জমে উঠেছে বাংলার রাজনৈতিক ময়দান। একাধিক ইস্যু নিয়ে বিজেপিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আর এবার এনআরসি প্রসঙ্গে বিজেপিকে আক্রমণ করলেন তৃণমূল নেত্রী। যেখানে অসমের কথা তুলে ধরে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। অর্থাৎ ভোটের প্রচারে এবার এনআরসি যে বিজেপি বিরোধীতার অন্যতম অস্ত্র তৃণমূলের কাছে, তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই কথা থেকেই পরিষ্কার হয়ে গেল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

সূত্রের খবর, আজ রানাঘাটে একটি সভা করেন তৃণমূল নেত্রী। আর সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে এনআরসি নিয়ে মন্তব্য করতে দেখা যায় তাকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “অসমে এনআরসি নিয়ে কি করেছে, মনে আছে তো? 14 লক্ষ নাম বাদ দিয়েছে। পুলিশ নামিয়ে ভোট করিয়েছে। অসমে বাঙালিদের উপর অত্যাচার, আর বাংলায় এসে ভোট চাই? লজ্জা করে না? বলবেন, আগে এনআরসি, এনপিআর তুলে নাও। আমি করতে দিইনি। আমি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মত লড়ি। বুকের পাটা আছে আমার। বিজেপির ধমকানি, চমকানিতে ভয় পাই না।”

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অর্থাৎ তৃণমূল নেত্রী এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে বুঝিয়ে দিলেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে এনআরসি করে ওপার বাংলায় পাঠিয়ে দেওয়ার চক্রান্ত করবে‌। তাই অসমের কথা তুলে ধরে মানুষ যাতে এখানে সচেতন থাকে এবং বিজেপির বিরুদ্ধে জনমত পোষণ করে, তার জন্য আবেদন করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি এনআরসির বিরুদ্ধে তিনি যে প্রথম থেকেই লড়াই করে আসছেন, সেকথাও সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরার চেষ্টা করলেন তৃণমূল নেত্রী বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

পর্যবেক্ষকদের মতে, তৃণমূল নেত্রী এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে দেশভাগের যন্ত্রণাকে মানুষের মনে তুলে ধরার চেষ্টা করলেন‌। অর্থাৎ তিনি বুঝিয়ে দিলেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে ভাগাভাগি রাজনীতি করবে। তাই এখন থেকেই যাতে সকলে সচেতন থাকে, তার জন্য আবেদন করতে দেখা গেল তাকে। আর সেই কারণেই এনআরসির মত ভয়াবহ ইস্যুর কথা তুলে ধরে বিজেপি বিরোধীতার সুরকে আরও চওড়া করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!