এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রোজভ্যালি কাণ্ডে নয়া মোড়! বড়সড় পদক্ষেপ সিবিআইয়ের! মুশকিল বাড়বে “লুকিয়ে থাকা” প্রভাবশালীদের?

রোজভ্যালি কাণ্ডে নয়া মোড়! বড়সড় পদক্ষেপ সিবিআইয়ের! মুশকিল বাড়বে “লুকিয়ে থাকা” প্রভাবশালীদের?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –বেশ কিছুদিন ধরেই শুনতে পাওয়া যাচ্ছিল, সিবিআইএবার রোজভ্যালি সহ একাধিক তদন্তের ক্ষেত্রে মাথাচাড়া দিতে শুরু করেছে। যার ফলে নানা মহলে জল্পনা তৈরি হয়েছিল যে, এবার হয়ত কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে পড়তে পারে। এবার রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডুর দক্ষিণ কলকাতার হোটেল এখনও কিভাবে চলছে, তা নিয়ে তদন্ত শুরু করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এক্ষেত্রে হোটেল পরিচালনার জন্য তারা টাকা যোগাচ্ছেন, তা খতিয়ে দেখতে চাইছে সিবিআই। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় বেশ কিছু প্রভাবশালীর নাম জড়িয়ে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গেছে, রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডু এবং তার এক ঘনিষ্ঠকে এই হোটেলের ডিরেক্টর হিসেবে দেখানো হয়েছে।

পরবর্তীতে সেই ডিরেক্টরের জায়গায় নতুন দুই মুখকে আনা হয়। আর তারাই এখন এই হোটেল পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই সামনে এই দুই মুখ থাকলেও পেছনে কারা কারা রয়েছে, তা এখন তদন্তের প্রধান বিষয় সিবিআইয়ের কাছে।ইতিমধ্যে এই ব্যাপারে সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে তদন্তে নামার পর একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। যেখানে দেখা গেছে, দুটি হাতবদলের কাগজপত্রে পুরনো তারিখ দিয়ে সই করা হয়েছে। আর এখানেই সিবিআইয়ের প্রশ্ন, যদি ডিরেক্টর এবং মালিকানার পরিবর্তন আগেই ঘটে থাকে, তাহলে গৌতম কুন্ডু ধরা পড়ার পর রাতারাতি সেই নাম কেন বাতিল করা হল?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

একাংশ বলছেন, রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডুর ইঙ্গিতেই তার ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তি এই কাজটি করেছেন। ইতিমধ্যেই যে সংস্থা এই গোটা প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত, তাদের ভূমিকা যাচাই করে সেই সংস্থার আধিকারিকদের ডাকার ব্যাপারেও উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গৌতম কুন্ডুর এই হোটেল নিয়ে এখন অনেক দূর এগোতে পারে গোটা পরিস্থিতি।

এর পেছনে কারা কারা রয়েছে, কারা এখনও পর্যন্ত এই হোটেল পরিচালনা করছেন, তা নিঃসন্দেহে তদন্তের বিষয়। তবে তদন্তে অনেক প্রভাবশালীর নাম উঠে আসতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই আগামী বিধানসভা নির্বাচনের আগে যদি তদন্তের তেমন কোনো প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম উঠে আসে, তাহলে ব্যাপক শোরগোল তৈরি হবে। সব মিলিয়ে এখন রোজভ্যালির তদন্তে নতুন করে সিবিআইয়ের এই পদক্ষেপ কার কার ঘুম উড়িয়ে দেয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!