এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বর্ধমান > সংরক্ষনের কোপে ‘ওয়ার্ড-ছাড়া’ হতে চলেছেন শাসক-বিরোধী উভয় দলেরই বহু হেভিওয়েট

সংরক্ষনের কোপে ‘ওয়ার্ড-ছাড়া’ হতে চলেছেন শাসক-বিরোধী উভয় দলেরই বহু হেভিওয়েট



সংরক্ষণের প্রকোপ থেকে রক্ষা নেই কারোরই! পঞ্চায়েতে সংরক্ষন জট নিয়ে ঘুম উড়েছিল বাংলার রাজনীতির কারবারিদের। জটিল সেই অঙ্ক কোনোরকমে মেলানোর পরে এবার – সংরক্ষণের জেরে এবার নাকাল হতে চলেছেন বর্ধমান ও গুসকরা পুরসভার একাধিক কাউন্সিলর।

এদিন উল্লিখিত দুই পুরসভার আসন সংরক্ষণের খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হয়। সেখানেই দেখা যাচ্ছে সংরক্ষণের শিকার হতে চলেছেন সংশ্লিষ্ট দুই পুরসভার তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলাররা তো বটেই, এমনকি বিরোধী দলের বহু হেভিওয়েট কাউন্সিলরও। উল্লেখ্য, রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত বর্ধমান পুরসভার মোট আসন সংখ্যা ৩৫ টি। আর এরমধ্যে ১৪ টি আসন সংরক্ষণের কোপে পড়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর এই ১৪ টির মধ্যে আবার ১২ টি আসন মহিলা তপশীলি জাতি ও উপজাতি সম্প্রদায়ের প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত। বাকি ৪ টি আসন সাধারণ তপশীলি জাতি ও উপজাতি প্রার্থীর জন্য সংরক্ষিত রয়েছে। বলা বাহুল্য এরফলে পুরসভার বর্তমান চেয়ারম্যান স্বরূপ দত্ত, ভাইস চেয়ারম্যান খোন্দেকার মহম্মদ সাহিদুল্লাহ আর তাঁদের আগের ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না।

নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হলে এঁদের অন্য কোনো ওয়ার্ড থেকে এবার দাঁড়াতে হবে। অন্যদিকে, একই অবস্থা পূর্ব বর্ধমানের গুসকরা পুরসভার ক্ষেত্রেও। খসড়া আসন সংরক্ষণের প্রকাশিত তালিকা অনুসারে পুরসভার মোট ১৬ টি আসনের মধ্যে ৯ টি আসন সংরক্ষণের কবলে পড়েছে। ফলে স্বভাবতই বিপাকে পুর চেয়ারম্যান বুর্ধেন্দু রায়ের আসন। বুর্ধেন্দুবাবুকে এখনই কোনো বিকল্প আসন দেওয়া হবে কি না এখনই সে বিষয়ে স্পষ্ট করা হয়নি। সবমিলিয়ে সংরক্ষনের নতুন জট নিয়ে ঘুম উড়েছে অনেক হেভিওয়েট নেতারই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!