এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > রায়গঞ্জ লোকসভা আসন থেকে রাজ্যসভার প্রাক্তন মন্ত্রী ও প্রাক্তন হেভিওয়েট সাংসদের টিকিট পাওয়া নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে

রায়গঞ্জ লোকসভা আসন থেকে রাজ্যসভার প্রাক্তন মন্ত্রী ও প্রাক্তন হেভিওয়েট সাংসদের টিকিট পাওয়া নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে



বিজেপি বিরোধিতায় নির্ণায়ক শক্তি হিসেবে তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে বেশ ভালই সখ্যতা রয়েছে প্রবল বিজেপি বিরোধী হিসেবে পরিচিত উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো অখিলেশ যাদবের।

কিন্তু সম্প্রতি বিরোধী মহাজোটে থাকা কংগ্রেসের সঙ্গে সেই সমাজবাদী পার্টির দূরত্ব বেড়ে যাওয়াতে অনেকের মনেই তীব্র জল্পনার সৃষ্টি হয়েছিল যে, তাহলে কি সেই বিরোধী মহাজোটের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় থাকা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে আগামী 19 জানুয়ারি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডের সভায় উপস্থিত থাকবেন অখিলেশ যাদব?

যদিও বা এই সমস্ত জল্পনা-কল্পনায় ইতি টেনে আগামী 19 শে জানুয়ারি তৃণমূলের এই ব্রিগেড সভায় যে সমাজবাদী পার্টি সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব উপস্থিত থাকবেন বৃহস্পতিবার তা কার্যত পরিষ্কার করে দিলেন সেই সমাজবাদী পার্টিরই সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি কিরণময় নন্দ।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার সমাজবাদী পার্টির 11 তম হেমতাবাদ ও কালিয়াগঞ্জ ব্লক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কিরণময় নন্দ। জানা যায়, কালিয়াগঞ্জের নজমু নাট্যমঞ্চে এবং হেমতাবাদের উৎসব ভবনে এই ব্লক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে কিরণময় নন্দের সাথে উপস্থিত ছিলেন দিল্লির সমাজবাদী পার্টির সভাপতি নিসার খান, উত্তর দিনাজপুর জেলার সভাপতি অরুণচন্দ্র দে সহ অন্যান্যরা। আর এই ব্লক সম্মেলনের সভামঞ্চ থেকেই বিজেপির উদ্দেশ্যে তীব্র কটাক্ষের সুর শোনা যায় কিরণময় নন্দের গলায়।

পাশাপাশি উত্তর দিনাজপুর জেলায় আগামী দিনে এই সমাজবাদী পার্টির সংগঠনটি কিভাবে চলবে সেই ব্যাপারে দলের নেতাকর্মীদের বার্তা দিয়ে যান বিগত বাম আমলের রাজ্যের প্রাক্তন মৎস্যমন্ত্রী। বিজেপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “মার্চের গোড়ায় লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা হতে পারে। পাঁচ রাজ্যের সম্প্রতি বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে। কেন্দ্রের বর্তমান সরকার জনবিরোধী এবং মিথ্যেবাদী সরকার। তাই এদেরকে পরাজিত করতেই হবে।”

 

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে 2011 সালের বিধানসভা নির্বাচনের সময় এই কিরণময় নন্দ রায়গঞ্জ আসন থেকে বাম সমর্থিত সমাজবাদী পার্টির হয়েও লড়লেও শেষ পর্যন্ত কংগ্রেস প্রার্থী মোহিত সেনগুপ্তর কাছে হেরে যান তিনি। আর তারপরেই সমাজবাদী পার্টির রাজ্যসভার সাংসদ হিসেবে উত্তরপ্রদেশ থেকে নির্বাচিত হন এই কিরণময় নন্দ। কিন্তু অতীতে হারলেও আসন্ন লোকসভা নির্বাচন নিয়ে এক প্রকার জল্পনা শোনা গেছে তাঁর মুখে।

এদিন তিনি বলেন, “এর আগে রায়গঞ্জ বিধানসভায় অল্প কিছু ভোটে গেলে গিয়েছিলাম। দায়িত্বে আসার পর এখানে আমার আসা অনেকটাই কমে গিয়েছে। কিন্তু আমি আবার এখানে আসছি যেন এইখানকার সংগঠনকে শক্তিশালী করতে পারি।” আর এখানেই একাংশের ধারণা, তাহলে কি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এই রায়গঞ্জ লোকসভা আসন থেকে সমাজবাদী পার্টির হয়ে লড়বেন কিরণময় নন্দ!

আর রাজনৈতিক মহলে যখন এই জল্পনা তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে ফুটে উঠছে, ঠিক তখনই আগামী 19 শে জানুয়ারি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা ব্রিগেড সমাবেশে সমাজবাদী পার্টির সুপ্রিমো অখিলেশ যাদব উপস্থিত থাকবেন বলে ভবিষ্যতে বিজেপি বিরোধী শক্তি হিসেবে নিজেদের তুলে ধরার আপ্রাণ চেষ্টা করলেন সমাজবাদী পার্টির এই সহ-সভাপতি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!