এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > রাতের অন্ধকারে তৃণমূল-বিজেপির অশান্তিতে রণাঙ্গন নন্দীগ্রাম, থমথমে পরিবেশ চিন্তা বাড়াচ্ছে

রাতের অন্ধকারে তৃণমূল-বিজেপির অশান্তিতে রণাঙ্গন নন্দীগ্রাম, থমথমে পরিবেশ চিন্তা বাড়াচ্ছে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজনৈতিক মহলের আনেকেই মনে করেছেন বর্তমানে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায় হিসেবে নির্ধারিত হয়েছে। নন্দীগ্রাম থেকেই বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী গত বেশ কয়েকবার তৃণমূল বিধায়ক হিসেবে জিতে কাজ করেছেন। কিন্তু এবার তিনি গেরুয়া শিবিরে যোগদান করার পর নন্দীগ্রাম গেরুয়া রঙে রাঙিয়ে উঠতে পারে আশঙ্কা করা হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে, সেকথা ভেবেই তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে নন্দীগ্রাম থেকে লড়াইয়ের ঘোষণা করেছেন আর তারপর থেকেই আরও উত্তেজনা বেড়েছে নন্দীগ্রাম এলাকায়। আর সেই উত্তেজনার ইংগিত পাওয়া গেল গভীর রাতে নন্দীগ্রামের মহম্মদপুর এলাকায়।

সূত্রের খবর, নন্দীগ্রামের মহম্মদপুর এলাকায় গ্রাম্য বিবাদ থেকে শুরু হয় রাজনৈতিক অশান্তি। আর এই অশান্তির কারণেই জখম হন দুই বিজেপি কর্মী। এই ঘটনার পেছনে তৃণমূলের হাত আছে বলে অভিযোগ বিজেপির। পাল্টা পরে অবশ্য তৃণমূলের ওপরেও গেরুয়া শিবিরের হামলা চলে বলে জানা গিয়েছে। রাতভর তীব্র উত্তেজনা ছিল নন্দীগ্রামে। রবিবার রাতে সামান্য এক গ্রাম্য বিবাদকে কেন্দ্র করে শুরু হয় প্রথমে ঝামেলা। কিছুক্ষণের মধ্যেই এই বিবাদ রাজনৈতিক অশান্তিতে পরিণত হয়।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এলাকার বিজেপি কর্মীদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ তৃণমূলের দিকে। গুরুতর আহুত অবস্থায় দুই বিজেপি কর্মীকে তমলুক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গভীর রাতে আবার এই ঘটনার পাল্টা বিজেপি কর্মীরা তৃণমূল সদস্যের বাড়িতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে। আগামী একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে যেভাবে নন্দীগ্রামের বাতাবরণ ক্রমশ উত্তপ্ত হচ্ছে, তাতে কিন্তু রীতিমতো আতংকিত সাধারণ মানুষ বলে জানা যাচ্ছে। অন্যদিকে আজ তমলুকে হতে চলেছে শুভেন্দু অধিকারীর জনসভা এবং মিছিল।

তার আগে রাতের অন্ধকারে এরকম রাজনৈতিক অশান্তিতে বিজেপি কর্মীদের আহত হওয়ার খবর শুভেন্দু অধিকারীর তৃণমূল আক্রমণ যে আরও বেশ কিছুটা উসকে দেবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা। তবে নন্দীগ্রামের হামলার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি বলেই খবর। সবমিলিয়ে নন্দীগ্রামের পরিস্থিতি এই মুহূর্তে থমথমে। মূলত নন্দীগ্রাম এই মুহূর্তে তৃণমূল এবং বিজেপির কাছে অন্যতম লড়াইয়ের ময়দান হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। যার ফলস্বরূপ বিগত বেশ কয়েকদিন ধরে ঘনঘন নন্দীগ্রামে অশান্তির কথা শোনা যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!