এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > রাতের অন্ধকারে ব্যাপক বোমাবাজি, জখম বিজেপির একাধিক কর্মী, অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে

রাতের অন্ধকারে ব্যাপক বোমাবাজি, জখম বিজেপির একাধিক কর্মী, অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নির্বাচন কমিশনের ভোটের দিন ঘোষণার বেশ কিছুদিন পরে গতকাল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ পেয়েছে। আশঙ্কা ছিলই, প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর রাজ্যজুড়ে উত্তেজনা বাড়বে আর সেই আশঙ্কাই কার্যত সত্যি হলো। নির্বাচন কমিশন অবশ্য দীর্ঘদিন ধরেই রাজনৈতিক হিংসা বন্ধের কথা বলে আসছে, কিন্তু নির্বাচন কমিশনের সাবধানবাণী যে ক্রমশ রাজ্যে প্রহসনে পরিণত হচ্ছে, তা পরিষ্কার গতরাতের ঘটনা থেকে। প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত হতে না হতেই রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল গোসাবা। সূত্রের খবর, রাতভর বোমাবাজি চলছে এলাকায়। জানা গিয়েছে, এই বোমাবাজির কারণে অন্তত ছয়জন জখম হয়েছেন।

গেরুয়া শিবিরের দাবি আহত 6 জনই তাঁদের দলের সদস্য। পাশাপাশি গেরুয়া শিবির এই ঘটনার পিছনে তৃণমূলের চক্রান্তের আশংকা করছে। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই তান্ডব চালিয়েছে। বিজেপি সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, শুক্রবার রাতে শোভন দেবনাথ, বিক্রম শীল, অর্পণ দেবনাথ, শুকুর আলী, মহাদেব নায়েক এবং অনাথ মন্ডল বিয়ে বাড়ি থেকে ফিরছিলেন। তখনই তাঁদের লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া হয়। ছ জনই গুরুতর জখম হয়। পরিস্থিতি গুরুতর দেখে তাঁদেরকে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত দুজনের অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে এই ঘটনায় এলাকাজুড়ে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই এলাকায় উপস্থিত হয়েছে পুলিশ বাহিনী। অন্যদিকে তৃণমূল বোমা ছোঁড়ার অভিযোগ অস্বীকার করে। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নির্বাচনে গন্ডগোল পাকানোর জন্য বোমা তৈরি করছিল বিজেপি কর্মীরা, আর সেখান থেকেই ঘটেছে বিপত্তি। তৃণমূলের কেউ এই ঘটনায় জড়িত নয়। বরাবরই দক্ষিণ 24 পরগনা জেলা নির্বাচনের নিরিখে স্পর্শকাতর জেলা বলে স্বীকৃতি পায়। আগামী পয়লা এপ্রিল দক্ষিণ 24 পরগনার গোসাবায় ভোটগ্রহণ হতে চলেছে। কিন্তু তার আগেই যেভাবে এলাকা উত্তপ্ত হয়ে উঠছে তা নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত রাজনৈতিক মহল।

পাশাপাশি উঠছে আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার প্রশ্নটি। ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনীর টহল চলছে এলাকাজুড়ে। তার মধ্যেই এ ধরনের ঘটনা যথেষ্ট চিন্তার বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে এখনো পর্যন্ত দুষ্কৃতীদের কাউকেই পুলিশ গ্রেপ্তার করে উঠতে পারেনি। পাশাপাশি এলাকা জুড়ে এখনো থমথমে পরিস্থিতি। নতুন কোনো বড় অশান্তি ঠেকাতে এলাকা জুড়ে শুরু হয়েছে পুলিশি প্রহরা। আগামী দিনে এধরনের গন্ডগোল ঠেকাতে রাজ্য প্রশাসন কি ব্যবস্থা গ্রহণ করে, সেদিকে নজর থাকবে সবার।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!