এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > রাতে ঘরে ঢুকে সস্ত্রীক তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক পেটালো দুষ্কৃতীরা! অভিযোগের আঙুল বিজেপির দিকে!

রাতে ঘরে ঢুকে সস্ত্রীক তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক পেটালো দুষ্কৃতীরা! অভিযোগের আঙুল বিজেপির দিকে!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা কোনোমতেই কমতে দেখা যাচ্ছে না বাংলায়। বিধানসভা নির্বাচনের দিন যত এগিয়ে আসছে, ততই বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূল বনাম বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষ ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিজেপির প্রতি আক্রমণের অভিযোগ উঠতে দেখা যায়। তবে এবার দক্ষিণ 24 পরগনার পাথরপ্রতিমার জি-প্লট গ্রাম পঞ্চায়েতের গোবর্ধনপুরে তৃণমূল কর্মী দেবকুমার দাস এবং তার স্ত্রী পূজা দাস আক্রান্ত হলেন বলে খবর। যে ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠতে শুরু করেছে ভারতীয় জনতা পার্টির দিকে। আর এতেই ব্যাপক চাপানউতোর সৃষ্টি হয়েছে এলাকাজুড়ে।

কিন্তু কেন এরকম ঘটনা ঘটল? ঠিক কি কারণে তৃণমূলের নেতা এবং তার স্ত্রীর ওপর এই আক্রমণ হল? প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, জি প্লটের গোবর্ধনপুর থানার বুড়োবুড়ির তটের গোবর্ধনপুর গ্রামের বাসিন্দা পেশায় বিদ্যুৎ দপ্তরের অস্থায়ী কর্মী বলে পরিচিত তৃণমূলের দেব কুমার দাস। এদিন তিনি এবং তার স্ত্রী পূজা দাস খাওয়া-দাওয়া সেরে ঘরে ঘুমোচ্ছিলেন। অভিযোগ, রাত আড়াইটার সময় 7-8 জনের একটি দল তাদের ঘরে ঢুকে লাঠি লোহার রড দিয়ে তাদের মারধর করে।

জানা যায়, ঘরের ভেতর থেকে শিকল দেওয়া থাকলেও ভোর রাতে দরজা ঠেলে সেই ঘরে ঢুকে গিয়ে দেবকুমার বাবুর মাথায় লোহার রড দিয়ে আঘাত করে দুষ্কৃতীরা। আর স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে পূজা দাস এগিয়ে আসার সাথে সাথেই তার বাম হাত ভেঙে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, তাদের ঘরের বেশকিছু জিনিষপত্র ভাঙচুর করা হয়। এছাড়াও টাকা-পয়সা ও সোনার গয়না নিয়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।

আর তৃণমূল নেতা এবং তার স্ত্রীর উপর এহেন দুষ্কৃতী হামলার ঘটনায় এখন ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়। আক্রান্ত তৃণমূল নেতা এবং তার স্ত্রী এই গোটা ঘটনায় বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তুলতে শুরু করেছেন। আর এতদিন তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় বিজেপি আক্রমণের অভিযোগ তুললেও, এই ঘটনায় তৃণমূলের পক্ষ থেকে বিজেপির দিকে অভিযোগ তোলায় ভারতীয় জনতা পার্টি অনেকটাই চাপে পড়ে গেল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে জি প্লট অঞ্চল তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক মাইতি বলেন, “আক্রান্ত দম্পতি আমাদের দলের সক্রিয় কর্মী। এলাকায় তৃণমূল কর্মীদের ওপর আক্রমণ চালিয়ে বিজেপি সন্ত্রাস সৃষ্টি করতে চাইছে। শনিবার রাতের ঘটনা তারই পুনরাবৃত্তি।” যদিও বা তৃণমূলের তোলা এই অভিযোগকে সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

এদিন এই প্রসঙ্গে মথুরাপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি দীপঙ্কর জানা বলেন, “দম্পতিকে আক্রমণের ঘটনায় বিজেপি কোনোভাবেই যুক্ত নয়। তৃণমূল রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।” একাংশ বলছেন, বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই ধরনের ঘটনা এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে যেমন প্রশ্নচিহ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিল, ঠিক তেমনই আগামীদিনের শাসক-বিরোধী তরজাকেও অনেকাংশে বাড়িয়ে দিল। এখন এলাকা শান্ত রাখতে এবং রাজনৈতিক উত্তেজনা কমাতে রাজনৈতিক দলগুলো এবং পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!