এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > রাসবিহারীর সভা থেকে ফের বদলার হুঁশিয়ারি! বিতর্কে দিলীপ ঘোষ!

রাসবিহারীর সভা থেকে ফের বদলার হুঁশিয়ারি! বিতর্কে দিলীপ ঘোষ!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – লড়াই ক্রমশ জমে উঠতে শুরু করেছে। নির্বাচনের দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা হয়নি। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস তাদের প্রথম প্রার্থী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম ঘোষণা করে দিয়েছে। নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করছেন বলে নিজের মুখ থেকেই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। আর এর পরেই রাজ্য রাজনীতিতে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। আর নন্দীগ্রামে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সভা করছেন, ঠিক সেইসময় দক্ষিণ কলকাতায় সভা করছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

শুভেন্দু অধিকারী এবং দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে এদিনের এই সভায় ব্যাপক জমায়েত হয়েছিল। আর সেই সভা থেকেই শাসকদলের উদ্দেশ্যে বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা গেল বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। যেখানে আবারও বদলা নেওয়ার কথা শোনা গেল তার গলায় বলে অভিযোগ একাংশের।

সূত্রের খবর, এদিন রাসবিহারীর সভা থেকে বিজেপির মিছিলে ইট ছোড়া নিয়ে আক্রমণ করেন রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, “দিলীপ ঘোষের শুধু মুখ না, হাত-পাও চলে। জিতলে শারীরিক ভূগোল পাল্টে দেব। বিজেপি শান্তিপ্রিয় দল। অভ্যাস না পাল্টালে মুশকিল। আজকেও মিছিলে হামলা হয়েছে।” স্বভাবতই বিজেপির রাজ্য সভাপতির মন্তব্যকে কেন্দ্র করে এবার নতুন করে বিতর্ক তৈরি হয়েছে গোটা রাজ্য জুড়ে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, ইতিমধ্যেই নানা সময় বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন দিলীপ ঘোষ। দেখে নেয়ার কথা বল নিজের দলে বিড়ম্বনা বাড়িয়ে দিতে দেখা গেছে তাকে। আর রাজ্য রাজনীতিতে যখন তৃণমূল বনাম বিজেপির তরজা চরম আকার ধারণ করেছে, তখন দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্য শাসকদলের হাতে বাড়তি হাতিয়ার তুলে দিল বলেই দাবি একাংশের।

পর্যবেক্ষকদের অনেকে বলছেন, বিজেপি যেমন তৃণমূলকে সদাসর্বদা আক্রমণ করতে ব্যস্ত ঠিক তৃণমূল ও নানা ইস্যুতে বিজেপিকে আক্রমণ করতে সচেষ্ট হয়েছে এক্ষেত্রে ভারতীয় জনতা পার্টির বিরুদ্ধে নানা ইস্যুকে কাজে লাগাতে শুরু করেছে রাজ্যের শাসক শিবির। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে দিলীপ ঘোষের এই ধরনের বিতর্কিত মন্তব্য যথেষ্ট চাপে ফেলবে ভারতীয় জনতা পার্টিকে বলেই দাবি করছেন একাংশ। ক্ষমতায় আসার আগেই যদি দিলীপ ঘোষের মত নেতারা এই ধরনের দেখে নেওয়ার কথা বলতে শুরু করেন, তাহলে ক্ষমতায় আসলে তারা ঠিক কি করতে পারেন, তা নিয়ে নানা মহলে তৈরি হয়েছে প্রশ্ন। সব মিলিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতির এই ধরনের মন্তব্যকে কেন্দ্র করে নতুন করে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ল গোটা রাজ্য জুড়ে।

 

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!