এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্যের তর্পণ কান্ডের রেশ-2021 এ তৃণমূলের তর্পণ করবেন বলে দাবী দিলীপ ঘোষের

রাজ্যের তর্পণ কান্ডের রেশ-2021 এ তৃণমূলের তর্পণ করবেন বলে দাবী দিলীপ ঘোষের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যজুড়ে বিজেপি এবং তৃণমূলের দ্বন্দ্ব প্রায়শই দেখা যাচ্ছে। তবে মনে করা হচ্ছে, এই দ্বন্দ্ব কয়েক গুণ বেড়ে গেছে মহালয়াকে কেন্দ্র করে। মহালয়া হেতু শহীদ তর্পণ করতে বিজেপি বাধা পাওয়ায় শুরু হয়েছে তীব্র বিতর্ক। বিজেপির বিভিন্ন নেতা তাঁদের ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন সংবাদমাধ্যমে। ইতিমধ্যে বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় রীতিমতো প্রশাসন এবং তৃণমূল সরকারকে হুমকি দিয়েছেন।

যা নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র রাজনৈতিক চর্চা। প্রসঙ্গত, গত বছরের মতো এ বছরেও বিজেপি শহীদ স্মরণে তর্পণ করানোর উদ্দেশ্যে বাগবাজার ঘাটে জড়ো হন মুকুল রায়, কৈলাশ বিজয়বর্গীরা। কিন্তু করোনার কারণে পুলিশ তাঁদের তৈরি করা মঞ্চ খুলে দিতে বলে। প্রচুর পুলিশ মোতায়েন হয় ঘাটে। এই অবস্থায় বিজেপি নেতারা বিক্ষোভ শুরু করেন। কিন্তু তাতেও বাগবাজার ঘাট এর দরজা খোলেনি। অবশেষে তাঁরা গোলাবাড়ি ঘাটে যান এবং সেখানে শহীদ তর্পণ দিবস পালন করেন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু প্রথমেই বাধা পেয়ে বিজেপি নেতারা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। এ প্রসঙ্গে দিল্লিতে সংসদের সামনে থেকে তৃণমূলকে আক্রমণ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বৃহস্পতিবার মহালয়ার দিন সংসদের সামনে থেকেই তিনি বলেন, ‘2021 এ গঙ্গায় তৃণমূলের তর্পণ করবো আমরা।’ এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, তিনি প্রার্থনা করছেন শুভশক্তির জয়ের এবং অশুভ শক্তির বিনাশের। তর্পণ প্রসঙ্গ ছাড়াও জিএসটি নিয়েও তৃণমূলকে এদিন বিঁধেছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

তাঁর মতে, তৃণমূলের এত টাকার চাহিদা হবার কোন কারণ নেই। কারণ রাজ্য সরকারের মূল ইনকাম মদ থেকে। অন্যান্য রাজ্যগুলিতেও করোনা পরিস্থিতি চলছে। সে ক্ষেত্রে তাঁরা কিভাবে চলছে, সেদিকে নজর দেওয়া উচিত। বিশেষজ্ঞদের মতে, মহালয়ার প্রাক্কাল থেকে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল ও বিজেপির দ্বন্দ্ব অন্যমাত্রা পেল। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, রাজ্যের তর্পণ কান্ডের রেশ আরো দীর্ঘদিন ধরে চলবে। গেরুয়া শিবির যে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচার চালাবে সে ব্যাপারে একমত সবাই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!