এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মুঘল আমলের ইতিহাসও বিকৃত করে ফেললেন! বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে

মুঘল আমলের ইতিহাসও বিকৃত করে ফেললেন! বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে



ঐতিহাসিক তথ্য নিয়ে বিভ্রান্তিকর মন্তব্যে এবার নাম জড়ালো এক বিজেপি নেতার। এতদিন মন্তব্য বিতর্কে দফায় দফায় বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছিল। এবার ইতিহাস বিকৃতির মতো মারাত্মক অন্যায়ের অভিযোগে বিদ্ধ হল পদ্মশিবির।
রাজনৈতিক সূত্রে খবর, এদিন এক জনসভায় বক্তব্য পেশ করতে গিয়েছিলেন বিজেপি নেতা মদনলাল সাইনি। সেখানেই আলোয়ার প্রসঙ্গে সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করলে তিনি জানান, ‘যে দেশে বাস কর, সে দেশের ধর্মীয় নীতিকে সবার সম্মান জানানো উচিৎ। এমনকী মুঘল সম্রাটরাও এই সম্মান দেখিয়ে এসেছেন। তাই মৃত্যুশয্যায় হুমায়ুন বাবরকে বলেছিলেন, হিন্দুস্থান শাসন করতে হলে গরু, মহিলা ও ব্রাহ্মণকে সম্মান করতে হবে। এদের অপমান ভারতীয়রা মেনে নেয় না।’ এ প্রসঙ্গে তিনি ঔরঙ্গজেবের কথাও বলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

জানান ঔরঙ্গজেবের শাসনকালে ভারতে গোহত্যা নিষিদ্ধ ছিল। মুসলিম বাদশাহরা পর্যন্ত গোহত্যার অনুমতি দেননি। কিন্তু আজ তাঁর অনুগামীরা বিবেচনা না করেই গোহত্যা করছেন। আর এদিকে ‘আলোয়ার’ প্রসঙ্গ নিয়ে এতো সমালোচনা হচ্ছে। কিন্তু যাকে নিয়ে এতো কপাল চাপড়াচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়, সেই আকবর আসলে একজন গোরু পাচারকারী ছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা চলেছে। এরসঙ্গে তিনি সাফ জানান,আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া ঠিক নয়। গনতান্ত্রিক দেশের নাগরিক হিসাবে সকলের উচিৎ দেশের আইন মেনে চলা। সেই অর্থে আকবরের মৃত্যু দুর্ভাগ্যজনক।
আলোয়ার নিয়ে নিজের মতামত জানাতে গিয়ে এভাবেই বেঁফাস মন্তব্য করে ফেললেন সংবাদ সংস্থার সামনে। ইতিহাসকেই বিকৃত করে ফেললেন তিনি। কারণ, ঐতিহাসিক তথ্যানুসারে, বাবর হুমায়ুনের পিতা। ১৫৩১ সালে বাবরের মৃত্যু হয়েছে। তার ২৫ বছর পরে অর্থাৎ ১৫৫৬ সালে নিধন হয়েছে ছেলে হুমায়ুনের। কিন্তু সাইনির বক্তব্যে স্পষ্ট, তিনি বলেছেন হুমায়ুন বাবরের পিতা! এই বিভ্রান্তিকর মন্তব্যের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে কংগ্রেস। বিজেপি নেতার বিকৃত মন্তব্যকে হাতিয়ার করে আক্রমণ শানিয়েছেন রাজস্থানের কংগ্রেস প্রধান অর্চনা শর্মা। এমনকি সেই সূত্র ধরে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী মোদীকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। অর্চনা জানান, আলোয়ারের বর্তমান পরিস্থিতি থেকে দেশবাসীর মনোযোগ ঘোরাতেই ইতিহাসের ভুল ব্যাখ্যা দিয়েছেন সাইনি। তবে এটা অবিশ্বাস্যকর ঘটনা নয়। দেশের বিজেপি প্রধানমন্ত্রীও সুযোগ পেলে ইতিহাসের ভুল ব্যাখ্যাই করেন। আসলে এটা বিজেপি নেতাদের সুপরিকল্পিত কৌশল। তাঁরা ইচ্ছে করেই দেশের ছোট,বড় ইস্যুগুলো থেকে দেশবাসীর নজর ঘোরাতেই এমন কাজ করছেন। একই সঙ্গে বিদ্রুপের স্বর চড়িয়ে বলেন, বিজেপি নেতারা কখনোই ইতিহাসের সঠিক ব্যাখ্যা করেন না। আসলে সাইনি মোদীজিরই দেখানো পথে হাঁটছেন। প্রসঙ্গত,সাইনির এই বিভ্রান্তিকর মন্তব্যের জেরে বিরোধীমহলে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় উঠে গেছে। তবে যাকে নিয়ে এত সমালোচনা তাঁর তরফে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।
উল্লেখ্য, সাইনি রাজস্থান রাজ্যসভার সাংসদ। গত মাসেই অশোক পরনামীর জায়গায় তিনি বিজেপি সভাপতির কুর্সিতে বসেছেন। গত এপ্রিল নাগাদ দলীয় সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন অশোক পরনামী।

আপনার মতামত জানান -

Top
Facebook Friends
error: Content is protected !!