এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাজীব কুমারের মামলায় শীর্ষ আদালতে সিবিআই পেল বড়সড় ধাক্কা

রাজীব কুমারের মামলায় শীর্ষ আদালতে সিবিআই পেল বড়সড় ধাক্কা



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – চিটফান্ড মামলায় কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই টানাপোড়েন চলছে। সিবিআই এর পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই একের পর এক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, রাজীব কুমার হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চালানোর জন্য। কিন্তু সিবিআইয়ের কোনো পদক্ষেপই কাজে দেয়নি। কলকাতা হাইকোর্টে সিবিআই রাজীব কুমারকে হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানালে রাজীব কুমারের রক্ষাকবচ বহাল রাখে হাইকোর্ট। এর পরেই হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয় সিবিআই। এদিন সেই মামলারই শুনানি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মামলার শুনানি 2 সপ্তাহ পিছিয়ে গেল সুপ্রীম কোর্টের নির্দেশে বলে জানা গিয়েছে।

ফলস্বরূপ সারদা মামলার অন্যতম অভিযুক্ত রাজীব কুমারকে হেফাজতে নেওয়ার পরিকল্পনা কিছুদিনের জন্য ভুলে থাকতে হবে সিবিআইকে বলে মনে করা হচ্ছে। যথারীতি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সিবিআইকে যথেষ্ট ধাক্কা দিল বলে দাবী রাজনৈতিক মহলের একাংশের। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পাশাপাশি রাজ্য জুড়ে চলছে মামলার ঘনঘটা। কখনো দেখা যাচ্ছে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে সিবিআই এবং ইডির পক্ষ থেকে নোটিশ এসেছে, কখনো বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে মাদক চক্রে যোগের অভিযোগে চলছে জেরা। পাশাপাশি সারদাকাণ্ডে রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ নিয়ে সিবিআইয়ের আবেদন যথেষ্ট প্রাসঙ্গিক হয়ে ওঠে।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, 2013 সালে সারদা আর্থিক কেলেঙ্কারির জেরে রাজ্যে গঠিত হয় সিট। এবং সেই সিটের দায়িত্বে ছিলেন তৎকালীন বিধাননগরের পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। পরবর্তীকালে সারদা মামলা সামনে এলে সিট সংক্রান্ত বেশকিছু প্রশ্ন করা হয় রাজীব কুমারকে সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে। কিন্তু সূত্রের খবর, রাজীব কুমার সিবিআইকে খুশি করতে পারেননি। আর তার জেরেই আবারও রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করার আর্জি জানিয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল সিবিআই।

রাজীব কুমার ভার্সেস সিবিআইয়ের লড়াইতে অন্যতম ভূমিকা গ্রহণ করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজীব কুমারের গ্রেফতারের প্রতিবাদে মুখ্যমন্ত্রী ধর্নায় পর্যন্ত বসে গিয়েছিলেন। তাই নিয়ে তীব্র বিতর্ক আজও বিদ্যমান বাংলার রাজনৈতিক মহলে। সেক্ষেত্রে শীর্ষ আদালতের নির্দেশের দিকে আজ চোখ রেখেছিল সিবিআই। কিন্তু দিনের শেষে সিবিআইকে খালি হাতেই ফিরতে হলো। পাশাপাশি বিশেষজ্ঞদের মতে, রাজ্যে শাসক দল এমনিতেই কোণঠাসা হয়ে পড়েছে সিবিআইয়ের দাপটে, সেক্ষেত্রে রাজীব কুমারের ক্ষেত্রে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস মিলল তৃণমূল শিবিরের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!