এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > রাফাল নিয়ে মোদির বিরুদ্ধে উঠল না ঝড় – রাহুল-প্রিয়াঙ্কা এবার ইন্দিরার দেখানো পথেই

রাফাল নিয়ে মোদির বিরুদ্ধে উঠল না ঝড় – রাহুল-প্রিয়াঙ্কা এবার ইন্দিরার দেখানো পথেই



লোকসভা নির্বাচনে প্রচারে ঝড় তুলতে ও কেন্দ্রের মসনদ থেকে বিজেপি সরকারকে সরাতে কোন ইস্যুর উপর ভিত্তি করে এগিয়ে যাওয়া যায় তা নিয়ে প্রথম থেকেই জোর বিশ্লেষণ শুরু করেছিল হাত শিবির। আর প্রচারে নেমেই রাফাল যুদ্ধবিমান নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হতে দেখা গিয়েছিল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীকে। কিন্তু রাফাল ইস্যুতে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুললেও সাধারণ মানুষের সমর্থন আদৌ কংগ্রেসের পক্ষে নিয়ে আসা যাবে কি না তা নিয়ে ভাবনা চিন্তা করে এবার নিজেদের প্রচার পদ্ধতি কিছুটা হলেও বদলে দিতে চাইছে হাত শিবির।

সূত্রের খবর, ঠাকুরমা ইন্দিরা গান্ধীর স্লোগান “গরিবী হটাও” কে ধার করেই এবার সাধারণ মানুষের মন জয় উদ্যোগী হচ্ছেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী ও তাঁর বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। জানা গেছে, ইতিমধ্যেই গরীব ভোটারদের মন পাওয়ার জন্য চিঠি লিখতে শুরু করেছেন রাহুল এবং প্রিয়াঙ্কা। যেখানে ক্ষমতায় এলে প্রত্যেক মাসে ৬ হাজার টাকা অর্থাৎ বছরে ৭২ হাজার টাকা দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিতে শুরু করেছে কংগ্রেস। স্লোগানে বলা হচ্ছে, “গরিবী পর ওয়ার – ৭২ হাজার।”


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিকে “গরিবী হটাও” স্লোগানকে সামনে রেখে যখন গরীব মানুষের মন জয় করতে ও ভোটারদের সমর্থন পেতে তৎপর হতে শুরু করেছে কংগ্রেস, ঠিক তখনই নিজেদের দলকে গরীব বলে তুলে ধরে আর্থিক সাহায্য চাওয়ার কর্মসূচিও নেওয়া হয়েছে হাত শিবিরের তরফে। ইতিমধ্যেই আর্থিক সাহায্য চেয়ে শিল্পপতিদের কাছে একটি চিঠি দিয়েছেন কংগ্রেস কোষাধক্ষ্য আহমেদ প্যাটেল বলেও জানা গেছে। কিন্তু “গরিবী হটাও” স্লোগান দিয়ে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ককে শক্ত করার চেষ্টা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে করা হলে এবং এই ব্যাপারে সাধারণ মানুষের কাছে চিঠি লেখা হলেও ঠিক কার কার কাছে কংগ্রেসের সেই চিঠি পৌঁছবে?

কংগ্রেসের দাবি, সরকারের কাছে সোসিও ইকোনমিক কাস্ট সেনসাসের যে তথ্য রয়েছে সেখান থেকেই এই সমস্ত গরীব পরিবারের খোঁজ নেওয়ার পর প্রদেশ এবং জেলা নেতৃত্বকে সেই সমস্ত পরিবারের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, শুধুই বিজেপির বিরুদ্ধে মন্তব্য এবং রাফায়েল নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে খোঁচা দিলেই যে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক শক্ত হবে না তা ভালো মতই জানে কংগ্রেস। আর তাই তো এবার সাধারণ ভোটারদের মন পেতে “গরিবী হটাও” স্লোগান দিয়ে ইন্দিরা গান্ধীর পথে হেঁটে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে যেতে পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছেন রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীরা। কিন্তু রাহুল, প্রিয়াঙ্কা জুটির এহেন সিদ্ধান্তে আদৌ কংগ্রেসের ভোটব্যাঙ্ক শক্ত হবে কিনা তা জানার জন্য আগামী ২৩ শে মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!