এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মুখ্যমন্ত্রীর নাককাটা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের

মুখ্যমন্ত্রীর নাককাটা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের



রাজপুত কাহিনীকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া বি-টাউনের সিনেমা পদ্মাবতীকে কেন্দ্র করে যখন গোটা দেশ জুড়েই এক চাপান-উতর শুরু হয়েছে ঠিক তখনই তৃণমূল নেতা অরূপ বিশ্বাসও ওই ছবি প্রসঙ্গকে টেনে এনে বিজেপি দল তথা প্রধানমন্ত্রীর দিকে বিষোদ্গার করেন আজ চুঁচুড়ার গোর্খা ময়দানে ডাকা জিএসটি এবং নোট বাতিলের ইস্যুতে ডাকা সভায়। অরূপ বাবু আজ তাঁর বক্তব্যের প্রথমেই বলেন, বিজেপি আমাদের দেশের মহিলাদের সম্মান করে না। একটি সিনেমা হয়েছে, বিষয়বস্তু যাই থাকুক, ওরা বলেছে অভিনেত্রীর নাক কেটে নিতে হবে, তাঁর মাথার দামও ধার্য হয়েছে সাত কোটি টাকা। এ কোন ভারতে বাস করছি আমরা? মমতা ব্যানার্জি যখন বলেছেন, এই বাংলায় এই সিনেমা চলবে। তখন বলছে মমতা ব্যানার্জির নাক কেটে নাও। মমতা ব্যানার্জি আমার দিদি, আমার মা, আমাদের শ্রদ্ধার নেত্রী। ওরা তো বলবেই, যে মোদী নিজের স্ত্রী কে সম্মান দেননা, তাঁরা ভারতবর্ষের মহিলাদের কি করে সম্মান দেবেন?
অরূপ বাবু তাঁর বক্তব্যে অত্যন্ত দৃঢ়তার সাথে আরো বলেন, নরেন্দ্র মোদী আর বেশিদিন নেই। ৫৩৯ জনকে নিয়ে গেলেও গুজরাতে বিজেপির ফল খারাপ হবে। আজকে ভারতবর্ষের মানুষ বলেন, ওর (নরেন্দ্র মোদী) নাম দামোদর নরেন্দ্র ভাষণবাজ মোদী। অরূপ বাবু ছাড়াও ওই সভা মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের হুগলি জেলা সভাপতি তপন দাশগুপ্ত সহ জেলার সাংসদ ও বিধায়করা। এই সভা থেকেই সংখ্যালঘু সেলের নেতা পারভেজ রহমান নাম না করে ত্বহা সিদ্দিকিকে আক্রমণ করে তাঁর বক্তব্যে বলেন যে এখানকার সংখ্যালঘু সহ সমগ্র তৃণমূল দল মুখ্যমন্ত্রীর কথাতেই চলে ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!