এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল গড়ে বড় আঘাত গেরুয়া শিবিরের, সংগঠনের জোড় বাড়ছে বলে দাবী

পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল গড়ে বড় আঘাত গেরুয়া শিবিরের, সংগঠনের জোড় বাড়ছে বলে দাবী



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশের বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্রমাগত চলছে এখন বাংলার রাজনৈতিক দলগুলির শক্তি বাড়ানোর প্রতিযোগীতা। শাসক ও বিরোধী- উভয় দলই মেতে উঠেছে একে অপরকে টেক্কা দিতে বলে যাবি রাজনৈতিক মহলের। আর সে ক্ষেত্রে তালিকার প্রথম দুটি নামই হচ্ছে তৃণমূল ও বিজেপি। বিধানসভার নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই দেখা যাচ্ছে যুযুধান এই দুই রাজনৈতিক শিবির থেকে ক্রমাগত চলছে দলবদলের পালা। বলা যায়, দুটি দলই তাঁদের সাংগঠনিক শক্তি বাড়ানোর জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

সম্প্রতি তৃণমূল শিবিরে যোগদান করেন বেশ কয়েকজন অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তাঁদের মধ্যে একজন হলেন পূর্ব মেদিনীপুরের বিশিষ্ট ডাক্তার বাদল অশ্রু ঘাঁটা। সম্প্রতি তিনি কলকাতায় তৃণমূল ভবনে গিয়ে দলে যোগ দেন। তৃণমূল ভবনে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে দলে স্বাগত জানান বলে জানা গেছে। কিন্তু একদিন যেতে না যেতেই গেরুয়া শিবির দিল পাল্টা জবাব। পূর্ব মেদিনীপুরে এবার বড়োসড়ো আঘাত করলো গেরুয়া শিবির তৃণমূলের সাংগঠনিক মূলে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পূর্ব মেদিনীপুরের বিজেপির কাঁথির সাংগঠনিক জেলা পটাশপুরে এদিন ব্লক 1 এর তৃণমূল সংগঠন থেকে প্রায় 50 জন কর্মী গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেন বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করেছেন সম্প্রতি তৃণমূলে যোগদানকারী বাদল অশ্রু ঘাঁটার দুই ভাইপো শুভজিৎ ঘাঁটা ও অভিজিৎ ঘাঁটা। জানা যাচ্ছে, তাঁদের নেতৃত্বেই তৃণমূলের 50 জন কর্মী কাঁথিতে বিজেপির অনুপ চক্রবর্তী হাত থেকে দলীয় পতাকা গ্রহণ করেন।  বিশেষজ্ঞদের মতে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূল যথেষ্ট বেকায়দায় পড়ল এই দলবদল এর ঘটনায়।

অন্যদিকে রাজ্যের ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের মতে, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে যদি এভাবে ক্রমাগত বিজেপিতে যোগদান চলে, তাহলে কিন্তু অচিরেই তৃণমূলের ঘরে ব্যাপক আকারে বিপর্যয় ঘটবে। আর সে কথা মাথায় রেখেই রাজনৈতিক মহলের একাংশের মত, অবিলম্বে শাসকদলের ভাঙন আটকানোর জন্য তৎপর হওয়া উচিত দলের। বিভিন্ন জায়গা থেকে যেভাবে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করার খবর পাওয়া যাচ্ছে, তাতে কিন্তু কার্যত তৃণমূল শিবির রীতিমতো অস্বস্তির মুখে পড়ছে বলে দাবি অনেকের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!