এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > পুজোর আগে নিম্নচাপের ভ্রুকুটি রাজ্যে! কি বলছে পুজো ভাগ্য

পুজোর আগে নিম্নচাপের ভ্রুকুটি রাজ্যে! কি বলছে পুজো ভাগ্য



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট- পুজোর আগে বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস পাওয়া গিয়েছিল আগেই। সেই ধারণাকে সফল করে আজ থেকেই দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন অংশে বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, আজ ১৯শে অক্টোবর মধ্য-বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে, যা কিনা আগামী ২৪ ঘণ্টায় আরও শক্তিবৃদ্ধি করবে।

ফলত পুজোয় বৃষ্টির সম্ভাবনাকে উপেক্ষা করা যাচ্ছে না এখনই। তবে নিম্নচাপটি ধীরে ধীরে ওড়িশা এবং অন্ধ্র উপকূলে সরে যাবে বলেও জানান হয়েছে হওয়া অফিসের তরফে। তবে এই নিম্নচাপের প্রভাবে বাংলাতেও দক্ষিণ পশ্চিমী ঝঞ্ঝার সাহায্যে প্রচুর পরিমাণ জলীয় বাষ্প ঢুকবে। আর তার প্রভাবেই পুজোয় বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, নিম্নচাপের প্রভাবে আগামীকাল ২০শে অক্টোবর পর্যন্ত কলকাতায় মূলত হাল্কা থেকে মাঝারি, আবার কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে। তবে ২১ থেকে ২৬শে অক্টোবর পর্যন্ত অর্থাত্‍ পুজোর সময়ে কলকাতায় বৃষ্টির পরিমাণ, তীব্রতা ও স্থায়িত্ব বাড়তে পারে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

ফলত পঞ্চমী থেকে দশমী পর্যন্ত শহরে বৃষ্টি হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে বিশেষ করে ২২ থেকে ২৪ অক্টোবর অর্থাত্‍ ষষ্ঠী, সপ্তমী এবং অষ্টমী এই তিনদিন কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই বৃষ্টি হবে বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। তাই পুজোর আছে এহেন পরিস্থিতিতে মাথায় হাত পুজো উদ্যোক্তা থেকে শুরু করে ভক্তদের।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, আজ সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা কিনা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি। তবে গতকাল সন্ধ্যায় কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয় বাষ্পের অত্যন্ত বেশি। তবে এই পরিমাণ কিছুদিন থেকেই রয়েছে বলেও জানা গেছে। ফলে দিনের বেলা ভ্যাপসা-গুমোট গরমে নাজেহাল হচ্ছে রাজ্যবাসী। সেই সঙ্গে রয়েছে অদ্রতাজনিত অস্বস্তি।

অন্যদিকে, দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাতেও আজ বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৮ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৭০ শতাংশ ছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় সেসব জায়গায় বৃষ্টির খবর পাওয়া যায়নি। তবে আজ বেলার দিকে বৃষ্টি হওয়ায় খানিকটা আবহাওয়া কিছুটা ঠান্ডা হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে আবহবিদদের মতে, পুজোয় বৃষ্টি হলেও বাতাসের চরম আর্দ্রতা কমবে না। ফলে অস্বস্তি যে বজায় থাকবে সেটা বলাই বাহুল্য।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!