এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > পুজোর আগে ঠিক কি হাল রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির? কতটা সাবধানতা নেওয়া প্রয়োজন? জানুন বিস্তারে

পুজোর আগে ঠিক কি হাল রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির? কতটা সাবধানতা নেওয়া প্রয়োজন? জানুন বিস্তারে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট করোনার চেন ভাঙ্গা গেছে, এই কথা দাবি করা হলেও বর্তমানে যেভাবে সারা দেশে করোনা আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ, সেই কথাকে মাথায় রেখে সামনের উৎসব নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন চিকিৎসক থেকে প্রশাসন সকলেই। বস্তুত বাঙালি উৎসব প্রিয় দুর্গাপুজো। আর তার সেই উৎসবের মধ্য থেকে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হয় দুর্গাপুজোকে।

সেই সঙ্গে দুর্গাপুজো পরবর্তীকালেও একাধিক উৎসব থাকে বাংলায়। তবে রাজ্যে ইতিমধ্যে করোনা থাবা যেভাবে সংক্রমণ ছড়াতে কার্যকরী হয়েছে, তাতে পুজোর উদ্যোগ নেওয়া কতটা যথাযথ হবে সেই প্রশ্ন তুলতে দেখা গেছে অনেককে। এপ্রসঙ্গে কিছুদিন আগে পুজো উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে জানা গিয়েছিল, সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং সতর্কতা বজায় রেখে পুজো করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা।

সেই সঙ্গে পুজোর আগে যথেষ্ট পরিমাণে মাস্ক-স্যানিটাইজার সমস্ত কিছু যাতে মজুত রাখা হয়, সেদিকেও নজর রাখবেন বলে জানা যায়। ডাক্তারদের আশঙ্কা ছিল যদি এক মুহূর্ত মানুষ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ভুলে যায়, তাহলে কিন্তু সংক্রমণ কয়েকগুণ বেশি ছড়িয়ে পড়বে। আর সেই মতো রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি সংকট থেকে সংকটতর হয়ে উঠবে বলে মনে করা হয়েছে।

তবে এমন পরিস্থিতিতে কি বলছে রাজ্যের করোনা রিপোর্ট? আর কতটা সতর্ক হতে হবে সাধারণ মানুষকে? কিভাবেই বা নিতে হবে সতর্কতার পদক্ষেপ! জেনে নিন বিস্তারিত ভাবে। এখানে বলে রাখা দরকার, ইতিমধ্যেই কিন্তু করোনা তার সংক্রমণের মাত্রা অতীতের সমস্ত রেকর্ডকে মুছে ফেলেছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

ফলে, তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৭৭১ জন। সেইসঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় মারণ ভাইরাসের বলি হয়েছেন ৬১ জন। তাই, স্বভাবতই স্বাস্থ্যদপ্তরের এই পরিসংখ্যানে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের কপালে। সেইসঙ্গে উৎসবের আগে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন আমজনতাও।

তথ্য সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৯ হাজার ৪১৭ জন। সেইসঙ্গে রাজ্যে মোট ৫৯৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই তুলনায় সুস্থতার হার ৮৭ শতাংশ। স্বাস্থ্যদপ্তরের নতুন বুলেটিন অনুযায়ী, সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে কলকাতা। জানা গেছে, এখানে ৭১৮৮ জন করোনা পজিটিভ রয়েছেন। কলকাতার পর রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই জায়গা নিয়ে প্রশাসন বরাবরই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

এখানে এই মুহূর্তে করোনা রোগীর সংখ্যা ৬৮৬৫ জন বলে জানা গেছে। এছাড়া, এখনও পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩,২২৭ টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে বলেও জানা গেছে। তার মধ্যে ৮ শতাংশের কিছু বেশি নমুনা পজিটিভ হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিসংখ্যান স্বাস্থ্যদপ্তর। পুজোর দিনগুলোয় তাই উৎসবের আনন্দে মেতে ওঠার আগে করোনা সতর্কতাই যেন আগে মানুষের নজরে আসে, সেই কথাই তাই বরাবর সতর্ক করে বলা হয়েছে বলেই জানা গেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!