এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুজোর মুখে খুশির হাওয়া শুভেন্দু গড়ে, বেতন বৃদ্ধি সহ শ্রমিকদের একগুচ্ছ দাবি পূরন

পুজোর মুখে খুশির হাওয়া শুভেন্দু গড়ে, বেতন বৃদ্ধি সহ শ্রমিকদের একগুচ্ছ দাবি পূরন



শারদোৎসবের আগে এবার খোদ পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর খাসতালুকে খুশিতে মশগুল শ্রমিকেরা। কিন্তু কেন? পুজোর আগে ঠিক কী এমন সুখবর পেলেন শ্রমিকেরা? জানা গেছে, বেতন বৃদ্ধি সহ একাধিক দাবিকে মান্যতা দেওয়ায় হলদিয়ার মানাকসিয়া কারখানার ঠিকা শ্রমিকরা ফের নতুন উদ্দীপনায় কাজ করতে শুরু করেছেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে এই কারখানার 137 জন ঠিকা শ্রমিকের বেতন চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়। কিন্তু এরপর নতুন করে আর বেতনচুক্তি না হওয়ায় ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছিল এই কারখানার শ্রমিকদের মধ্যে। প্রকৃত সুযোগ থেকে বঞ্চনার অভিযোগে গত দেড় মাস ধরে শ্রমিক অসন্তোষে এই কারখানায় কার্যত অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে কারখানা কতৃপক্ষ, পুলিশ এবং শ্রমিক প্রতিনিধিরা আলোচনা করলেও কোনো রফাসূত্র বেরোয়নি।

অবশেষে এই সমস্যার সমাধান করতে গোটা বিষয়টি শ্রম দপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষন করা হয়। আর সেইখানেই এই সমস্যার বরফ গলে বলে খবর। জানা গেছে, সম্প্রতি হলদিয়ার দুর্গাচকে ডেপুটি শ্রম কমিশনারের অফিসে চার ঘন্টার একটি ত্রিপাক্ষিক বৈঠক হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন শ্রম দপ্তরের আধিকারিক, ওই কারখানার শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা এবং শ্রমিক প্রতিনিধি এবং হিউমান রিসোর্স ম্যানেজার। সকলের উপস্থিতিতে এই বৈঠকের মধ্যস্থতা করেন হলদিঢ়ার ডেপুটি শ্রম কমিশনার মানাকসিয়ার মিহির সরকার। আর সেখানেই ঠিক হয় যে, 2018 সালের জানুয়ারী থেকে কার্যকর এই নতুন বেতনচুক্তিতে এতদিন শ্রমিকরা প্রতিমাসে 8580 টাকা পেলেও এবার থেকে তা বেড়ে হবে 9610 টাকা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি প্রতি বছরে বাড়ানো হবে 158 টাকা। আর এই সিদ্ধান্তে প্রবল খুশি শ্রমিকেরা। পাশাপাশি চুক্তি মোতাবেক কারাখানার ঠিকা শ্রমিকদের নিয়োগপত্র দেওয়ার পাশাপাশি বিগত 8 থেকে 9 বছর ধরে যারা এইখানে কাজ করছেন তাঁদের গ্র্যাচুয়িটিরও ব্যাবস্থা করা হবে। এদিন এই প্রসঙ্গে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার আইএনটিটিইউসির কার্যকরী সভাপতি শিবনাথ সরকার বলেন, “কারখানা কতৃপক্ষ আমাদের দাবি মেনে নেওয়ায় আমরা সকলেই খুশি।” আর তাই এখন পুজোর আগেই সেই খুশিতেই মাতোয়ারা হলদিয়ার মানাকসিয়া কারখানার শ্রমিকেরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!