এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > প্রথম কাজ কোভিড মোকাবিলা, শপথ নিয়েই জানালেন মমতা!

প্রথম কাজ কোভিড মোকাবিলা, শপথ নিয়েই জানালেন মমতা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েই করোনা ভাইরাস মোকাবিলা করা যে তার প্রধান দায়িত্ব, এবার তা জানিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দল আবার ক্ষমতায় আসলেও, যাতে কেউ বিজয় উৎসব না করেন, তা জানিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। আর এবার প্রশাসক হিসেবে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পর মানুষের পাশে দাঁড়াতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধান কাজ যে করোনা মোকাবিলা, তা বলাই যায়।

এদিন রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়ে নিজেই সেই কথা জানিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। স্বাভাবিক ভাবেই ব্যাপক রাজনৈতিক লড়াইয়ের পর সাফল্য পাওয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েই যে প্রশাসক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হিসেবে রাজ্যের মানুষের পাশে থাকতে উদ্যত হলেন, সেই চিত্র কার্যত স্পষ্ট হয়ে গেল বলেই মনে করছেন সকলে।

সূত্রের খবর, আজ সকাল 10 টা 45 মিনিটে রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যের রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার। আর এর পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমার সরকারের প্রথম কাজ, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করা।” আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়ে মানুষের পাশে থাকার যে বার্তা উঠে এল, তাতে স্বাগত জানাতে শুরু করেছেন সকলে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, এবার বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূলের লড়াইটা খুব একটা সহজ ছিল না। করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা করার পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার বিপুল জয়ের পর রাজনৈতিকভাবে নেতা-কর্মীদের বিজেপিকে প্রতিহত করতে কোনো নির্দেশ দেবেন বলেই মনে করা হয়েছিল। কিন্তু সেরকম কোনো রাস্তায় না হেঁটে প্রশাসক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে দেখা গেল দায়িত্বশীলতার মনোভাব। যেখানে রাজ্যবাসীর পাশে থাকার কথা বলে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করাই যে এখন তার প্রধান কাজ, তা বুঝিয়ে দিলেন তিনি।

জানা গেছে, রাজভবন থেকে ইতিমধ্যেই নবান্নে পৌঁছে গিয়েছেন তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বেলা সাড়ে বারোটার সময় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক করবেন তিনি। আর এরপর দুপুর তিনটের সময় একটি সাংবাদিক বৈঠক করার কথা রয়েছে তার। সব মিলিয়ে মনে আনন্দ থাকলেও, সেই সমস্ত কিছুকে দূরে দেখে করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েই রাজ্যবাসীর পাশে থাকার লক্ষ্যে অবিচল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!