এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > সবুজ-মেরুন না লাল-হলুদ? করোনা আবহে হতে চলা বছরের প্রথম ডার্বির রঙ কি? জানতে আড়াআড়ি ভাগ বাংলা

সবুজ-মেরুন না লাল-হলুদ? করোনা আবহে হতে চলা বছরের প্রথম ডার্বির রঙ কি? জানতে আড়াআড়ি ভাগ বাংলা



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একদিকে নক্ষত্রপতনের হাহাকার, অন্যদিকে আইএসএলে প্রথম ডার্বির উত্তেজনা। বস্তুত, এই দুই অনুভূতিকে একসঙ্গে মানিয়ে নিয়ে চলা সম্ভবত সাধারণ মানুষের কাছে দুঃসাধ্য। তবুও এমনই পরিস্থিতিতে ফুটবলের ইতিহাস লেখা হচ্ছে। একে করোনা পরিস্থিতি দোসর, তারপর এহেন অবস্থা, ফুটবল প্রেমীদের জন্য যেন নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে এসেছে। তবে এরই মধ্যে কি হতে চলেছে প্রথম ডার্বির রঙ? জল্পনা তুঙ্গে।

যেখানে একদিকে ডার্বি দিয়েই ভারতীয় ফুটবলে লিভারপুল কিংবদন্তির অভিষেক হবে। সেখানে প্রতিপক্ষ কোচ এটিকে-কে দু’বার আইএসএলে চ্যাম্পিয়ন করেছেন। আর তাই চাপ রয়েছেই। অন্যদিকে সবচেয়ে দেরিতে প্রস্তুতিও শুরু করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। তবে এই প্রসঙ্গে লিভারপুলকে অসংখ্য কঠিন ম্যাচে জেতানো ফাওলার জানিয়েছেন, সময় কম পেলেও তাঁরা সম্পূর্ণ ভাবে প্রস্তুত।

সেইসঙ্গে তাঁর কথায়, ফুটবলারেরা তৈরি। কয়েক জনের সামান্য চোট রয়েছে। কিন্তু তা খুব বড় সমস্যা নয় বলেই জানিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, কেরলের বিরুদ্ধে এটিকের ম্যাচ গত কয়েক দিনে একাধিক বার দেখেছেন ফাওলার-সহ এসসি ইস্টবেঙ্গলের খেলোয়াড়রা।

তবুও এখানে চিন্তার কারণ হিসেবে অনেকেই বলেছেন, সবুজ-মেরুন কোচের কাছে একেবারেই অচেনা প্রতিপক্ষ এসসি ইস্টবেঙ্গল। তার উপরে চোটের কারণে মাইকেল সুসাইরাজের না থাকা নিয়েও সমর্থকেরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। কিন্তু এর মধ্যেও হাবাস নির্লিপ্তভাবই দেখিয়েছেন।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়েছেন, ‘‘আমার মনে হয় না এসসি ইস্টবেঙ্গল বাড়তি কোনও সুবিধে পাবে। ডার্বির আগে একটা ম্যাচ খেলতে পারা আমাদের জন্য ইতিবাচক। তবে এসসি ইস্টবেঙ্গলের ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা খারাপ নয়। কারণ আমরা ওদের খেলা এখনও দেখিনি।’’ শুধু তাই নয়, তাঁর কথায় সুসাইরাজের ছিটকে যাওয়াকেও তিনি দলের পক্ষে বড় ধাক্কা বলেই জানিয়েছেন।

সেইসঙ্গে তিনি বলেন, “জানি না ওকে এই প্রতিযোগিতায় আর পাব কি না।’’ যদিও এ ক্ষেত্রে জানা গেছে যে সুসাইরাজের বিকল্প হিসেবে সবুজ-মেরুন দল শুভাশিস বসুকে ভেবে রেখেছেন। এদিন কোচ বলেন, ‘‘ম্যাচের দিন সকালেই আমি প্রথম একাদশ নির্বাচন করি। তাই এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয় কারা খেলবে।’’

অন্যদিকে, ফাওলার প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলার ইঙ্গিত দিয়েছেন। সেখানে বৃহস্পতিবার সকালে অধিনায়ক হিসেবে ইপিএলে খেলা ড্যানি ফক্সের নাম ঘোষণা করে ফুটবলারদের উদ্দেশে ফাওলারকে পরামর্শ দিতে দেখা গেছে। তাঁর কথায়, বিপক্ষের ডিফেন্ডারদের চাপে রাখতে নিজেদের মধ্যে দ্রুত পাস খেলে বার বার জায়গা বদল করতে হবে।

সেখানে রয় কৃষ্ণকে থামাতে মাঠি স্টেনম্যানকে সম্ভবত দায়িত্ব দেওয়া হবে বলেও অনেকে মনে করেছেন। জেজে-কে ‘ফ্রি প্লেয়ার’ হিসেবে ব্যবহার করার পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানা গেছে। অন্যদিকে, ভারতীয় ফুটবলের প্রাক্তন অধিনায়ক আই এম বিজয়ন জানিয়েছেন, ডার্বিতে কিছুটা হলেও এগিয়ে রয়েছে লাল-হলুদ শিবির।

তাঁর কথায়, অচেনা প্রতিপক্ষ সব সময়ই ভয়ঙ্কর। অন্যদিকে, ফাওলারের রণনীতি সম্পর্কে তাঁদের কোনও ধারণাই নেই বলেই জানিয়েছেন তিনি। কারণ এটিকে-মোহনবাগান কীভাবে খেলে তা সকলেরই জানা আছে বলেই জানিয়েছেন তিনি।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!