এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল পুজো উদ্বোধন! দূরত্ববিধি শিকেয় তুলে শুভেন্দু-গড়েও উপচে পড়ল ভিড়!

প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল পুজো উদ্বোধন! দূরত্ববিধি শিকেয় তুলে শুভেন্দু-গড়েও উপচে পড়ল ভিড়!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পশ্চিমবঙ্গে ইতিপূর্বে বহুবার দুর্গাপূজার উদ্বোধন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, শাসক দল তৃণমূলের বিভিন্ন নেতা-মন্ত্রী। তবে, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর হাতে দুর্গাপূজার উদ্বোধন এক অভিনব বিষয় এ রাজ্যের কাছে। গতকাল মহাষষ্ঠীর সকালে রাজ্যের মোট দশটি পুজোর ভার্চুয়াল উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। উদ্বোধনের পর বঙ্গবাসীর প্রতি তিনি যে বক্তব্য রাখলেন সেখানে, করোনার বিষয়ে বারবার সচেতন করে দিলেন মানুষের।

জনসমাগম এড়াতে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারে একাধিক নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল মেদিনীপুর শহরের বার্জটাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসব সমিতির পুজোর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শুনতে সে স্থলে উপস্থিত হলেন বহু বিজেপি কর্মী-সদস্য। যেখানে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধির কোন নাম গন্ধই পাওয়া গেল না।

প্রসঙ্গত মেদিনীপুর শহরের বার্জটাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসব সমিতির পুজো এবছর ৭৪ এ পা দিল। তাদের এই দুর্গোত্সবের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। অভিযোগ উঠেছে, প্রধানমন্ত্রীর পুজোর উদ্বোধনের সময় কোন রকম সামাজিক দূরত্ব মানা হয়নি। স্ক্রিনে প্রধানমন্ত্রীর পুজোর উদ্বোধন দেখতে ভিড় করেছিলেন অসংখ্য বিজেপি কর্মী। উদ্বোধনের পর পর্দা সরিয়ে দীপ জ্বালানো হয়। এরপর থেকে ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়লেন বিজেপি কর্মীরা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

বিজেপির নেতারা প্রধানমন্ত্রীর ‘দো গজ কি দূরি’ একেবারেই উপেক্ষা করে গেলেন। গতকাল ভারতের প্রধানমন্ত্রীর এই পূজা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বার্জটাউনের মণ্ডপে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সম্পাদক তুষার মুখোপাধ্যায়, বিজেপির জেলা জোনাল কনভেনার অনুপম মল্লিক সহ জেলার বিশিষ্ট নেতৃবৃন্দ। তবে, করোনা আক্রান্ত হবার কারণে জেলা বিজেপি সভাপতি শমিত দাস এই অনুষ্ঠানে যোগদান করতে পারেননি।

এই পুজোর অন্যতম প্রধান কর্মকর্তা হলেন বিজেপির জেলা সহ-সভাপতি শুভজিৎ রায়। বিজেপির জনৈক জেলা নেতা অরূপ দাস জানিয়েছেন যে, সমস্ত রকম দূরত্ব বিধি, তথা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এই ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করা হয়েছিল। অন্যদিকে, এ প্রসঙ্গে বিজেপির জেলা সহ-সভাপতি শুভজিৎ রায় জানিয়েছেন যে, অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি, বিভিন্ন সংগঠনের কর্মকর্তা সহ ৩০০ থেকে ৩৫০ জন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শুনতে পেছন দিকেও দাঁড়িয়েছিল বেশকিছু বিজেপি কর্মী। তবে তিনি দাবি করেছেন যে, এ অনুষ্ঠানে সমস্ত সামাজিক দূরত্ব বিধি মান্য করা হয়েছে। কয়েকদিন ধরে এই অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেন উদ্যোক্তারা। প্রধানমন্ত্রীর সাথে কর্মকর্তাদের কথা বলার ব্যবস্থাও ছিল। তবে প্রধানমন্ত্রী তাঁদের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি। পুজো উদ্যোক্তা ও বিজেপি নেতাদের পক্ষ থেকে সাফাই দেওয়া হলেও। করোনা সংক্রমণ কালে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে এমন জমায়েত ঘটায় তা নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!