এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > “প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের সম্পদ” দিলীপের গলায় প্রশান্ত স্তুতি নাকি কটাক্ষ? জানুন বিস্তারিত

“প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের সম্পদ” দিলীপের গলায় প্রশান্ত স্তুতি নাকি কটাক্ষ? জানুন বিস্তারিত



লোকসভা নির্বাচনে পর্যুদস্ত হওয়ার পর তৃণমূলের রণনীতিকারের দায়িত্ব নিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর। আর তার পর থেকেই নানা সময়ে বিজেপির তরফ থেকে তাকে নানা কটাক্ষ করা হয়েছে। কোনোভাবেই প্রশান্ত কিশোর রাজ্যের পরিস্থিতি পাল্টাতে পারবেন না বলে দাবি করেছেন বিজেপির নেতারা। তবে তা সত্ত্বেও তৃণমূলের হয়ে কাজ করে কিছুটা হলেও বিজেপিকে বিপাকে ফেলেছেন সেই প্রশান্ত কিশোর। তবে সম্প্রতি প্রশান্ত কিশোরকে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা প্রদান করা হয়।

বিধায়ক, সাংসদ, মন্ত্রী না হওয়া সত্ত্বেও কেন তাকে এই ধরনের জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা প্রদান করা হল! তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে বিরোধীরা। আর এই পরিস্থিতিতে তৃণমূলের রননীতিকার প্রশান্ত কিশোরকে বড় ভিআইপি বলে অভিহিত করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন তিনি বলেন, “তৃণমূলের ছোটখাটো নেতাদের বাড়ির বাইরে পুলিশ পোস্টিং থাকে। নিরাপত্তা নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। প্রশান্ত কিশোরকে তো দিতেই পারে। উনিই এখন রাজ্যের সবথেকে বড় ভিআইপি। তৃণমূলের সম্পদ।” আর এরপরই রাজ্য সরকারের টাকা দিয়ে এভাবে প্রশান্ত কিশোরকে নিরাপত্তা দেওয়ার কোনো অর্থই হয় না বলে দাবি করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে দিলীপ ঘোষ বলেন, “সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়ার টাকা নেই। এই রাজ্য দেনায় ডুবে রয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই বলছেন, কোষাগারের টাকা নেই। সেই রাজ্যে মানুষের করের টাকায় প্রশান্ত কিশোরকে নিরাপত্তা দিচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।” আর দিলীপ ঘোষের তোলা এই প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে এখন কিছুটা হলেও যে অস্বস্তিতে পড়বে রাজ্যের শাসক দল, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। অনেকে বলেছেন, সত্যিই তো তাই। দিলীপ ঘোষ তো কিছুটা হলেও সত্যি কথা বলেছেন।

কেননা যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেন যে, রাজ্যের কোষাগারে নুন আনতে পান্তা ফুরোনোর মত অবস্থা, সেখানে কোনো জনপ্রতিনিধি না হওয়া সত্ত্বেও, প্রশান্ত কিশোরকে এভাবে জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়ার কোনো অর্থ হয় কি, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন সাধারণ মানুষের অনেকেই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!