এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > প্রশান্ত কিশোরকে নিয়ে আশঙ্কার কথা শোনালেন বিজেপির হেভিওয়েট নেতা, বাড়ছে জল্পনা!

প্রশান্ত কিশোরকে নিয়ে আশঙ্কার কথা শোনালেন বিজেপির হেভিওয়েট নেতা, বাড়ছে জল্পনা!



গত লোকসভা ভোটের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের দলের অবস্থার পরিবর্তন করবার জন্য দলের রননীতিকার করেন বিশিষ্ট ভোটগুরু প্রশান্ত কিশোরকে। মূলত অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় পরামর্শেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের দলের হিতের জন্যই এই প্রশান্ত কিশোরকে সমস্ত দায়িত্ব দেন বলে দাবি করেন অনেকে। এমনকি প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের দায়িত্ব নিয়ে তৃণমূলকে যে খুব একটা নিরাশ করেননি, তাও ইতিমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে।

কেননা লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল অনেক জায়গায় পরাজিত হলেও, সদ্যসমাপ্ত রাজ্যের তিন বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের তিনটিতেই জয়যুক্ত হয়েছে রাজ্যের শাসক দল। যার পেছনে প্রশান্ত কিশোরের সূক্ষ্ম মস্তিষ্ক রয়েছে বলেই দাবি তৃণমূলের একাংশের। আর প্রশান্ত কিশোর যখন তৃণমূলের সুফল আনার জন্য চেষ্টা করছেন, ঠিক তখনই তিনি তৃণমূলের দ্বারাই মার খেতে পারেন বলে দাবি করলেন হেভিওয়েট বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে এই বিজেপি নেতা বলেন, “সামনেই রাজ্যের পৌরসভা নির্বাচন। তৃণমূলের যে নেতারা টিকিট পাবে না, তারাই প্রশান্ত কিশোরকে ধরে পেটাবেন। রাস্তায় যেখানে পাবেন, সেখানেই প্রশান্ত কিশোরকে ধরে মারবেন তৃণমূলীরা। আর তাই মারধরের হাত থেকে তাকে বাঁচাতে দিদি আগাম ব্যবস্থা করে রাখছেন।” বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রায় সকলেরই জানা, তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল ঠিক কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে। তাই এই পরিস্থিতিতে প্রশান্ত কিশোরকে যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার নিরাপত্তা দিচ্ছে, ঠিক তখনই কেন সেই নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে, তা ফাঁস করে দিয়ে তৃণমূলকেই অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন সায়ন্তনবাবু।

তবে শুধু সায়ন্তন বসু নয়, প্রশান্ত কিশোরের নিরাপত্তা দেওয়া নিয়ে তৃণমূলকেও কটাক্ষ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “তৃণমূলের ছোটখাটো নেতার বাড়ির বাইরে ব্যবস্থাকে প্রশান্ত কিশোরকে নিরাপত্তা দিতেই হবে। তিনি এখন শাসক দলের কাছে ভিআইপি। জনগণের করের টাকায় কেন তাকে নিরাপত্তা দেওয়া হবে!” সব মিলিয়ে বিজেপির একের পর এক নেতার লাগাতার চাপের মুখে পড়ে এখন তৃণমূল যেন প্রশান্ত কিশোরকে নিয়ে সাঁড়াশি চাপের মুখে পড়েছে বলে দাবি রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!