এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রকাশ্য জনসভায় এবার হুমকি দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, বিতর্ক তুঙ্গে

প্রকাশ্য জনসভায় এবার হুমকি দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, বিতর্ক তুঙ্গে



বিতর্ক আর পিছু ছাড়ছে না বিজেপি নেতাদের। সম্প্রতি যেভাবে বিজেপি নেতারা একের পর এক হুমকি এবং হুঁশিয়ারি দিয়ে কথা বলছেন, তাতে মনে হচ্ছে এভাবেই কথা বলা তাদের একচেটিয়া অভ্যাস। সম্প্রতি রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে যারা প্রতিবাদ জানাচ্ছেন, তাঁদেরকে গুলি করে মারা উচিত বলে একটি বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। এই নিয়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে রাজনৈতিক মহলে এবং নাগরিক সমাজে। এবার আসানসোলের সংসদ তথা বিজেপি নেতা বাবুল সুপ্রিয় আরেকবার বিতর্ক সৃষ্টি করলেন প্রকাশ্য জনসভায় হুমকি দিয়ে।

সম্প্রতি ছত্তিশগড়ে এনআরসি ও সিএএ এর সমর্থনে একটি দলীয় সভায় বক্তব্য রাখতে যান আসানসোলের সাংসদ তথা বিজেপি নেতা ও গায়ক বাবুল সুপ্রিয়। সেখানেই তিনি এক সাংবাদিককে প্রকাশ্যে সাসপেন্ড করে দেওয়ার হুমকি দিলেন। ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ পেয়েছে। এবং হু হু করে শেয়ার বাটনের মাধ্যমে সেটি ভাইরাল হয়ে গেছে। আর তারপরেই তুমুল সমালোচনার ঝড় উঠেছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের মধ্যে। একের পর এক বির্তকের সৃষ্টি হওয়াতে বিজেপি এই মুহূর্তে চরম অস্বস্তিতে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন ভিলাইয়ের হাউসিং বোর্ড কলোনিতে সিএএ এর সমর্থনে বক্তব্য রাখছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। যেখানে এই সভাটির আয়োজন করা হয়েছিল, সেই জায়গাটি ছোট ছিল। তুলনায় ভিড় অনেক বেশি ছিল। মঞ্চের সামনেই এক সাংবাদিক ও উপস্থিত জনগণের মধ্যে হঠাৎই ধাক্কাধাক্কি হতে শুরু করে। আর তখনই বাবুল সুপ্রিয় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হন এবং তিনি বলে ওঠেন, ‘আপনি এখান থেকে চলে যেতে চাইলে যেতে পারেন। গুন্ডামি করলে আপনাকে সাসপেন্ড করিয়ে দেব। যাওয়ার হলে যান না। পরে আপনার সঙ্গে কথা বলব। যাঁর সঙ্গে কথা বলবেন, তাঁর সামনে আপনি দাঁড়াতে পারবেন না। আগে অনুশাসন শিখে আসুন।  আমাকে কমজোরি ভাববেন না, আপনি চলে গেলেও আমার কোনও ক্ষতি হবে না। এরপরে যা করার আমি করব। দেখে নেব।’‌ এরপরে তিনি আবার নিজের বক্তৃতায় ফিরে যান এবং সিএএ নিয়ে তিনি জ্বালাময়ী বক্তৃতা দেন।

একের পর এক বিজেপি নেতারা বিতর্ক সৃষ্টি করায় এই মুহূর্তে বিজেপি দল চরম অস্বস্তির কাঠগড়ায়। অন্যদিকে, রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, যেভাবে প্রতিদিন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সারা দেশজুড়ে বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ বাড়ছে, তাতে বিজেপি নেতারা তাঁদের হুমকি এবং হুঁশিয়ারি দিয়ে সেই ক্কোভকে আরো উস্কানি দিচ্ছেন। যা কোনোভাবেই হওয়া উচিত নয়। অন্যদিকে, রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, বিজেপি নেতারা যেভাবে একের পর এক বিতর্ক সৃষ্টি করে চলেছেন, তাতে আগামী দিনের বাংলা দখল করতে তাঁদের বেশ কিছুটা বেগ পেতে হতে পারে। সুতরাং এ ব্যাপারটি মাথায় রাখা উচিত। আপাতত পরিস্থিতির ওপর নজর থাকবে রাজ্যের ওয়াকিবহাল মহলের।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!