এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ‘বোমা ফাটানো’ পরিচালকের বিরুদ্ধে এবার যৌন হেনস্থার বিস্ফোরক অভিযোগ!

মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ‘বোমা ফাটানো’ পরিচালকের বিরুদ্ধে এবার যৌন হেনস্থার বিস্ফোরক অভিযোগ!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট- সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে একে একে বলিউডে স্বজনপোশন, রিয়া চক্রবর্তীর গ্রেপ্তারি, সেইসঙ্গে বলিউডের প্রথম সারির তারকাদের মাদক যোগের কথা নিয়ে বলিউডে অন্তর্দ্বন্দ্ব লেগেই রয়েছে এবং তাতে উস্কানি দেওয়ার জন্য যার ভূমিকা সবার আগে বলে মনে করা হচ্ছে তিনি হলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। এর আগেও মহারাষ্ট্রের শিবসেনা সরকারের সঙ্গে বিজেপি যোগ নিয়ে ভালো রকম চর্চায় ছিলেন তিনি। সেই সঙ্গে বলিউড নিয়েও অনুরাগ কাশ্যপের সঙ্গে কিছুদিন ধরে তাঁর ঝামেলা চলছিল তাও ফুটে উঠেছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে সম্প্রতি বলিউডের একজন উঠতি তারকা পায়েল ঘোষের অনুরাগ কাশ্যপের সম্পর্কে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তীব্র জল্পনা শুরু করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুলে পায়েল ঘোষ শনিবার রাতে টুইট করেন যে, অনুরাগ কাশ্যপ নাকি খুব খারাপভাবে, জোর করে তাঁর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করতে চেয়েছে। তাই নরেন্দ্র মোদিজি দয়া করে কিছু করুক। মানুষ জানতে পারুক শিল্পী সত্ত্বার আড়ালে কোন রাক্ষস লুকিয়ে আছে। তিনি জানেন তাঁর ক্ষতি হতে পারে। তাঁর নিরাপত্তার ঝুঁকি আছে। তাই প্লিজ সাহায্য করুন। আর এরপরই তাঁর সঙ্গে গলা মিলিয়ে কঙ্গনা রানাওয়াত টুইট শেয়ার করে ‘মি টু’ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে অনুরাগ কাশ্যপের গ্রেপ্তারির দাবি তুলেছেন বলে জানা গেছে। এদিন অভিনেত্রীর টুইট ভাইরাল হওয়া মাত্রই অভিনেত্রীর পাশে দাঁড়িয়েছেন নেটিজেনরা। পরিচালকের গ্রেপ্তারির দাবিতে সকলে সরব হয়েছিলেন। তবে পালটা টুইট করতে ছাড়েননি পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপও।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অনুরাগ এরপর লেখেন, তিনি দু’বার বিয়ে করেছেন। তবে তা যদি অপরাধ হয়, তাহলে তিনি অপরাধ স্বীকার করে নিচ্ছেন। তবে তাঁর জীবনে অনেকবার প্রেম এসেছে, তা-ও তিনি মেনে নিচ্ছেন। কিন্তু তাঁর প্রথম স্ত্রী হোন বা দ্বিতীয়, প্রেমিকা অথবা কোনও অভিনেত্রী, যে মহিলাদের নিয়ে তিনি কাজ করেন, তাঁরা অথবা অন্য যে কোনও মহিলা, যাদের সঙ্গে তাঁর নিভৃতে দেখা হয় বা সকলের সামনে, সেখানে কখনও তিনি কারও সঙ্গে অশালীন আচরণ করেননি। কারণ এই ধরনের আচরণ কোনও ভাবে তিনি সমর্থন করেনও না। এরপর যাই হোক না কেন, তিনি শেষ দেখে ছাড়বেন।

কিছুদিন আগেই বিজেপি সভাপতি রবি কিষণকে নিয়ে তিনি মুখ খুলেছিলেন। একটি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, যেখানে বলিউডের মাদক যোগ নিয়ে তিনি তরজা করছেন, সেখানে তিনি নিজেই যে মাদক সেবন করতেন এক সময়, এ কথা তিনি অস্বীকার করতে পারেন না। তাই তাঁর এ নিয়ে এত চর্চা করার কোন মানেই হয়না। তবে এরপর পরিচালককে ঘিরে যেভাবে কুৎসা রটানো হচ্ছে, তাতে তাঁর মুখ বন্ধ করার জন্যই যে এমনটা করা হচ্ছে সেটাই তিনি মনে করেছেন। অন্যদিকে কঙ্গনার নাম না করে তিনি আরো বলেন যে, তাঁকে চুপ করানোর জন্য এত মিথ্যে বলতে হচ্ছিল যে, মিথ্যাকে জোরদার করতে নারী হয়ে অন্য এক নারীকে সেই মিথ্যেয় শামিল করতে হল। তবে শেষ পর্যন্ত এই ঝামেলা কতদূর গড়ায়, সেটা নিয়েই জল্পনা তৈরি হয়েছে সোশাল মিডিয়ায়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!