এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > RSS এর আপত্তিতে প্রধানমন্ত্রী ভারতে আসা বন্ধ করে দিলেন ক্যান্সারের ভ্যাক্সিন: দেবাংশু

RSS এর আপত্তিতে প্রধানমন্ত্রী ভারতে আসা বন্ধ করে দিলেন ক্যান্সারের ভ্যাক্সিন: দেবাংশু

Priyo Bandhu Media


সারভিক্যাল Cancer – মহিলাদের অন্যতম দ্বিতীয় কমন ক্যান্সার যা বছরে ৭০,০০০ মহিলার প্রাণ কেড়ে নেয় ।

এই রোগের টিকার নাম HPV ভ্যাক্সিন যা সারা পৃথিবী ঘুরে ভারতে আসার কথা ছিল। এরপরেই ঘটে ভারতের ইতিহাসের কলঙ্কময় ঘটনাটি, RSS এর Financial Wing মোদীকে চিঠি লিখে জানায় এই ভ্যাক্সিন “ক্ষতিকারক”। এতটা অবধি ঠিকই ছিল – যে কোনো সংগঠনেরই প্রধানমন্ত্রীর কাছে মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। কিন্তু, চিঠি পড়া মাত্র HPV Vaccine কে ভারতে আসা থেকে ব্লক করে দিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী! এই ভ্যাক্সিন এদেশে আদৌ আসবে কিনা তা নিয়ে এখন চিন্তা ভাবনা চালাচ্ছে সরকার।

বলে রাখা ভালো, আমেরিকা, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়ার মত প্রত্যেকটি প্রথম সারির দেশ সহ পৃথিবীর আরও ১০০+ দেশ এই একই ভ্যাক্সিন ব্যবহার করে এবং তাদের দেশের নাগরিককে মারণ রোগ হতে মুক্তি দেয়। কিন্তু ব্যতিক্রম ভারত! যে দেশে রাজনীতি প্রাণের চাইতেও দামী।

আমার প্রশ্ন –
১. এরূপ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সরকারপক্ষ কি মেডিক্যাল বিশেষজ্ঞদের সাথে কথা বলেছে অথবা তাদের মতামত নিয়েছে?
২. সরকার কি খতিয়ে দেখেছে কেনো ১০০ র বেশি দেশ এই ভ্যাক্সিন ব্যাবহার করে?
৩. সাময়িক বন্ধ করার কথাও ভেবে থাকলে সরকার কি অল্টারনেটিভ মেডিসিনের খোঁজ করেছে?
৪. সরকার কি ভেবেছ তাদের এক এক দিনের চিন্তা ভাবনার সময় কয়েক হাজার করে প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে প্রতিনিয়ত?

এই বিজেপি সরকারের হাত ধরে এভাবেই উন্নতির পথে হাঁটবে এই দেশ? যে দেশের সরকার একটা সাধারণ চিঠির জন্য ভারতের কোটি কোটি Cervical Cancer আক্রান্তের জীবন, স্বপ্ন ও বেঁচে থাকার আশার প্রদীপ এক ঝটকায় নিভিয়ে দিতে পারেন, জনগণের ভরসা তাদের উপর বজায় থাকবে কি? যেখানে পৃথিবীর ১০০+ দেশ এই ভ্যাক্সিন ব্যবহার করছে, সেখানে ভারতীয়রা একা ক্ষতির শিকার হবে? প্রথম বিশ্বের দেশগুলিকে কি তবে মূর্খ বলে গণ্য করতে হবে?

ভেবে তাজ্জব হতে হয়, হঠকারিতার বশে এমন একটি কাজ কী করে করলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী? জীবন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে চলা লক্ষ লক্ষ মা বোনদের যন্ত্রণা উপশমের মাঝে রাজনীতির একটা কাগজ বাঁধা হয়ে দাঁড়াবে? হাজার হাজার সংসারের মেরুদন্ড ভেঙে যাবে শুধু মাত্র সরকারি উদাসীনতায়?

দেবাংশু ভট্টাচার্য্য, পলিটিক্যাল অবজার্ভার

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!