এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পুরসভা জিততে নয়া পদক্ষেপ পিকের , মাঠে নেমে পড়লো টিম, জেনে নিন

পুরসভা জিততে নয়া পদক্ষেপ পিকের , মাঠে নেমে পড়লো টিম, জেনে নিন



 

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি হওয়ার পর দলে শৃঙ্খলা আনতে দলীয় রণনীতিকার হিসেবে প্রশান্ত কিশোরকে দায়িত্ব দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর দায়িত্ব পাওয়ার পরই সাধারণ মানুষের সঙ্গে তৃণমূলের যোগাযোগ তৈরি করতে দিদিকে বলোর মতো কর্মসূচি গ্রহণ করে সেই প্রশান্ত কিশোরের টিম। 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন বিজেপির কাছে যে পাখির চোখ, তা বুঝতে বাকি নেই কারোরই। তাই সেদিক থেকে লোকসভা নির্বাচনে কিছুটা খারাপ হওয়া তৃণমূল কংগ্রেস প্রশান্ত কিশোরকে এনে নিজেদের দলের ভালো করতে উদ্যোগী হয়েছিল। সেই মত চেষ্টাও করছেন প্রশান্ত কিশোর। তবে বিধানসভা নির্বাচনের আগে সকল রাজনৈতিক দলের কাছেই এখন অ্যাসিড টেস্ট হিসেবে পরিণত হয়েছে রাজ্যের পৌরসভা নির্বাচন।

জানা যাচ্ছে, চলতি বছরেই রাজ্যের মেয়াদোত্তীর্ণ পৌরসভাগুলো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেদিক থেকে সেই পৌরসভায় ভালো ফল করা যেমন লক্ষ্য রয়েছে শাসকদলের, ঠিক তেমনই লক্ষ্য রয়েছে বিরোধী দল বিজেপিরও। ইতিমধ্যেই কোন পৌরসভার কোন ওয়ার্ডে কে প্রার্থী হবেন, তার ব্যাপারে সেখানকার জনসাধারণের কাছে খোঁজখবর নিতে শুরু করেছে সেই প্রশান্ত কিশোরের টিম। আর এবার পৌরসভা নির্বাচনের খসড়া তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পর সাধারণ মানুষের সাথে আবার যোগাযোগ করে জনমত যাচাই করছে পিকের টিম।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, পৌরসভা নির্বাচনের খসড়া তালিকা প্রকাশ হওয়ার পরই পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন পৌরসভায় তৃণমূলের অনেক বর্তমান কাউন্সিলর নিজের ওয়ার্ডে এবার আর দাঁড়াতে পারবেন না। ফলে সেখানে নতুন মুখ আনা হবে, নাকি অন্য কোন পন্থা অবলম্বন করা হবে! তা জানতে সমাজের বিশিষ্টজনের কাছে ফোন করতে শুরু করেছে প্রশান্ত কিশোরের টিম। এক্ষেত্রে সংবাদ মাধ্যমের কর্মী থেকে শুরু করে সাহিত্যিক, শিক্ষক সহ বিভিন্ন মানুষের কাছে ফোন করছেন তারা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এগড়া পৌরসভার চেয়ারম্যান শঙ্কর বেরা, তমলুক এবং কাঁথি পৌরসভার চেয়ারম্যান দীপেন্দ্র নারায়ন রায় এবং সত্যেন্দ্রনাথ জানা এবার সংরক্ষণের গোরোয় পড়ার কারণে তারা নিজের ওয়ার্ডে দাঁড়াতে পারবেন না।

শুধু তাই নয়, তমলুক পৌরসভার কাউন্সিলর তথা সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী সহ অনেকেই এবার সংরক্ষণের কারণে নিজের ওয়ার্ডে দাঁড়াতে পারছেন না। আর পূর্ব মেদিনীপুর জেলার প্রায় সবকটি পৌরসভাতেই সংরক্ষণের জন্য তৃণমূলের হেভিওয়েট কাউন্সিলররা দাঁড়াতে না পারায়, সাধারণ মানুষ কি বলছেন! তা জানতে উদ্যোগী হয়েছে প্রশান্ত কিশোরের টিম।

বিশ্লেষকরা বলছেন, সাধারণ মানুষের কাছে তাদের মতামত শুনেই প্রার্থী ঠিক করার জন্য তৃণমূলকে উপদেশ দেবে এই প্রশান্ত কিশোরের টিম। সেক্ষেত্রে নতুন মুখ প্রার্থী হবে, নাকি সমাজে বিশিষ্টজনের তরফ থেকে প্রার্থী করা হবে তার ব্যাপারেও নানা আলোচনা করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। সব মিলিয়ে এখন গোটা পরিস্থিতি ঠিক কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়! সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!