এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > পশ্চিমবঙ্গের শোচনীয় বিপর্যয়ের পর উত্তরপ্রদেশে কি নেতৃত্ব বদল করতে চলেছে বিজেপি? জানুন বিস্তারিত

পশ্চিমবঙ্গের শোচনীয় বিপর্যয়ের পর উত্তরপ্রদেশে কি নেতৃত্ব বদল করতে চলেছে বিজেপি? জানুন বিস্তারিত



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে শোচনীয় পরাজয় এসেছে বিজেপির। ২০০ টি আসনের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ দূরে থাক, ১০০ টি আসন পার করাও সম্ভব হয়নি। এদিকে আগামী বছর রয়েছে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে দলের কান্ডারী কে হবেন? তা নিয়ে যথেষ্ট জল্পনা শুরু হয়েছিল। অনেকে বলতে শুরু করেন, প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভরসা হারিয়ে ফেলেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। কিন্তু সমস্ত জল্পনা মিথ্যে প্রমাণ করে দিয়ে শেষ পর্যন্ত যোগী আদিত্যনাথের উপরেই আস্থা প্রকাশ করল দল। আগামী বছর তাঁর নেতৃত্বেই নির্বাচনে লড়াই হবে বলে, দলের পক্ষ থেকে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেয়া হলো।

গতকাল মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশের বিজেপির রাজ্য সভাপতি স্বতন্ত্র দেব সিং জানালেন যে, যোগী আদিত্যনাথের উপরে দলের সম্পূর্ণ আস্থা, ভরসা আছে। আগামী বছর তাঁর নেতৃত্বেই বিধানসভা নির্বাচনে দল লড়াই করবে। তিনি জানালেন, গত ৫ বছর যোগী সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প ও সাফল্য গুলি রাজ্যের স্থানে স্থানে প্রচারের কাজে নেমে পড়বেন বিজেপির কর্মীরা। তিনি জানালেন, উত্তরপ্রদেশের অন্যতম সেরা মুখ্যমন্ত্রী হলেন যোগী আদিত্যনাথ।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকারের ওপর বারবার আক্রমণ ধেয়ে আসছিল বিরোধীদের। সরকারের কার্যকলাপ নিয়ে বারবার নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। বিরোধীদের ক্রমাগত চাপের কারণে সরকারের অস্বস্তিও বাড়তে শুরু করেছিল। বিশেষ করে করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতা, গঙ্গায় মৃতদেহ ভেসে ওঠা বারবার অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছিল যোগী সরকারকে। অনেকেই বলতে শুরু করেছিলেন যে, যোগী আদিত্যনাথের উপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

রাজ্য নেতৃত্তের বড়সড় রদবদলের সম্ভাবনাও অনেকে উস্কে দিয়েছিলেন। অনেকে বলেছিলেন, মন্ত্রিসভার বদল নিয়ে দলের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত প্রাক্তন আইএএস অফিসার এ কে শর্মা এবার আসতে পারেন মন্ত্রিসভায়। যদিও উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বিষয়গুলিতে কখনোই আমল দেননি। মন্ত্রিসভায় পরিবর্তনের কথা ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত তাঁর কথাই সত্য বলে প্রমাণিত হলো। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যে তাঁর ওপর এখনও আস্থা হারাননি, সে কথাই সত্য বলে প্রমাণিত হলো।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!