এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজভবন থেকেই সরাসরি নেত্রীর বাড়ি, কারন নিয়ে জল্পনা

রাজভবন থেকেই সরাসরি নেত্রীর বাড়ি, কারন নিয়ে জল্পনা



ছাত্রভর্তিতে তোলাবাজি, যাদবপুরে ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলন সহ একাধিক অভিযোগে হাসফাস অবস্থা রাজ্যের শিক্ষাদপ্তরের। কিভাবে এসব সামাল দেবেন শিক্ষামন্ত্রী? এই প্রশ্ন যখন ঘোরাফেরা করছে রাজ্যের শিক্ষাঙ্গনগুলিতে ঠিখ তখনই জল্পনা বাড়িয়ে গতকাল দুপুরে রাজভবনে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় রাজ্যপাল কেশরিনাথ ত্রিপাঠির সাথে দেখা করেন। বিকেল 3 টে 40 নাগাদ শিক্ষামন্ত্রী রাজভবন থেকে বেরিয়ে 4 টের সময় নিজ বাসভবনে সাংবাদিক বৈঠক করার কথা থাকলেও সোজা তাঁর কনভয় ছোটে কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনের দিকে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অনেকে মনে করছেন, প্রথমত যাদবপুরের ছাত্রছাত্রীরা যেভাবে প্রবেশিকা ফেরানোর দাবিতে আন্দোলন করছে সেই অবস্থাকে শান্ত করতে কি করা যায়? আর দ্বিতীয়ত 16 ই জুলাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলায় আসার সফরসূচী নিয়েই রাজ্যপালের সঙ্গে মূলত আলোচনা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে এদিন সাংবাদিকদের পুরোপুরি এড়িয়ে যান শিক্ষামন্ত্রী। অপরদিকে তৃনমূলও রাজ্যপালের সাথে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বৈঠকে আলোচনা নিয়ে সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে দিয়েছে। তবে হঠাৎ রাজভবন ছেড়ে বেরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাসভবনের দিকে ছুটলেন কেন শিক্ষামন্ত্রী? সূত্রের খবর, দলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রীর সাথে এক বৈঠকে শিক্ষাদপ্তরের মন্ত্রীত্ব পদ থেকে পদত্যাগ করতে চেয়েছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে তৃনমূল অবশ্য এগূলো সবই ভিত্তিহীন বলে দাবি করছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সম্প্রতি কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে তোলাবাজির জেরে তৃনমূল ছাত্র পরিষদের সভানেত্রী তথা শিক্ষামন্ত্রী ঘনিষ্ট জয়া দত্তকে তাঁর পদ থেকে সরিয়ে দেয় তৃনমূল। আর তাতে কিছুটা হলেও হতাশ হন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিন ফের শিক্ষামন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে কি সেই মনক্ষুন্ন পার্থকেই সান্তনা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! নাকি অন্য বড় কিছু অপেক্ষা করছে? জল্পনা তুঙ্গে!

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!