এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতে বিজেপির জয়ী প্রার্থীরা তৃনমূলে যাচ্ছে, হাওড়া-হুগলীতে উদ্বিগ্ন শীর্ষনেতৃত্ব

পঞ্চায়েতে বিজেপির জয়ী প্রার্থীরা তৃনমূলে যাচ্ছে, হাওড়া-হুগলীতে উদ্বিগ্ন শীর্ষনেতৃত্ব



রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনার পরেই শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেস সমস্ত জেলাপরিষদ দখল করলেও দু একটা সিট বিরোধীদলের থাকায় সেইসমস্ত জায়গা বিরোধীশূন্য করার ডাক দিয়েছিলেন। কথামত কাজও হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় বিরোধী দলের জয়ী সদস্যরা নাম লেখাতে শুরু করেছে তৃনমূলে। আর এতে চরম আতঙ্কিত রাজ্য বিজেপি। শনিবারই হাওড়ার বিজেপির তিন জয়ী সদস্য ঘাসফুল শিবিরে পা বাড়িয়েছেন। যার জেরে রাজ্যের আইশৃঙ্খলা অবনতি ও তৃনমূলের সন্ত্রাসের প্রতিবাদে সেই হাওড়ার উলুবেড়িয়া ও সাঁতরাগাছিতে একটি সভা করে বিজেপি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিনের এই সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিজেপি নেতা জয় ব্যানার্জী, জেলা বিজেপি সভাপতি(গ্রামীন) অনুপম মল্লিক, বিজেপি জেলা (শহর) সভাপতি সুরজিৎ সাহা সহ অনেকেই। সূত্রের খবর, এদিন এই সভায় তৃনমূল ছেড়ে কয়েকজন যোগ দেয় বিজেপিতে। সভায় উপস্থিত হয়ে বিজেপি নেতা জয় ব্যানার্জী বলেন, “রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। তৃনমূল নেতারা তোলা তুলছে। আর সে কারনেই মানুষ বিজেপিতে আসছে।আগামীতে এ রাজ্যে মানুষ বিজেপিকেই ক্ষমতায় আনবে।” এদিকে একই দিনে চাঁপদানিতে একটি সভা করেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির ওবিসি সেলের রাজ্য সভাপতি স্বপন পাল। এদিন বিজেপির এই সভা থেকে তৃনমূলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে মুকুল রায় বলেন, “রাজ্যে বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে কোনোওভাবেই তৃনমূল টিকতে পারবে না। 2019 এই এ রাজ্যে পালাবদল ঘটবে।” সব মিলিয়ে একই জেলায় একই দিনে দুই বিজেপি নেতা তৃনমূল সম্পর্কে কটাক্ষ করে আদতে লোকসভার জোরদার প্রচার শুরু করে দিলেন বলে মত রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!