এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > পঞ্চায়েতের মতোই বামেদের ভোটব্যাংকে বড়সড় থাবা বসিয়ে জলপাইগুড়িতে বাজিমাত করতে চায় গেরুয়া শিবির

পঞ্চায়েতের মতোই বামেদের ভোটব্যাংকে বড়সড় থাবা বসিয়ে জলপাইগুড়িতে বাজিমাত করতে চায় গেরুয়া শিবির



গত লোকসভা নির্বাচনের পর আর সেইভাবে জলপাইগুড়ি লোকসভা কেন্দ্রে বা জেলায় ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি বামেরা। আর এবারে সেই জলপাইগুড়ি লোকসভা নির্বাচনে বামেদের প্রাপ্ত ভোটে খাবা বসিয়ে সেখানে বাজিমাত করতে মরিয়া বিজেপি। প্রসঙ্গত, গত 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনে এই জলপাইগুড়ি লোকসভা আসনে তৃণমূলের প্রার্থী বিজয় চন্দ্র বর্মনের প্রাপ্ত ভোট ছিল 49 লক্ষ্য 4হাজার 773 টি। সিপিএম প্রার্থী মহেন্দ্র কুমার রায় 42 লক্ষ 5 হাজার 167 এবং বিজেপি প্রার্থী সত্যলাল সরকার 22 লক্ষ 1 হাজার 593 টি ভোট পান।

এদিকে লোকসভা নির্বাচনে বামেরা দ্বিতীয় স্থান দখল করলেও সম্প্রতি সদ্যসমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বামেদের পর্যুদস্ত হতে হয় এই জেলায়। জানা যায়, এখানে 80 টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে বর্তমানে বাম এবং কংগ্রেসের দখলে একটা না থাকলেও সামগ্রিকভাবে জেলায় চারটি গ্রাম পঞ্চায়েত দখল করে শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই করে দ্বিতীয় স্থানে মূল প্রতিপক্ষ হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপি।

আর সেই খাতিরে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বামেদের প্রাপ্ত ভোটে ভাগ বসিয়ে সেই শাসকের বিরুদ্ধে মূল প্রতিপক্ষের আসন দখল করে জলপাইগুড়ি লোকসভা আসনটি দখলের জন্য মরিয়া গেরুয়া শিবির। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই করলেও এখানে বামেদের প্রাপ্ত ভোটে ঠিক কতটা থাবা বসাতে পারছে বিজেপি তার ওপরই জলপাইগুড়ি আসনে তাদের জয় নির্ভর করছে। আসন্ন লোকসভা নির্বাচন এই জলপাইগুড়ি লোকসভা আসনটি কারা দখল করবে?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা বিজেপির সভাপতি দেবাশিস চক্রবর্তী বলেন, “এবারের নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের যে সমস্ত ভালো মানুষ রয়েছেন তাদের অনেকেই আমাদের প্রার্থীকে ভোট দেবেন। পাশাপাশি বাম ও কংগ্রেসের অনেক নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় এবারের নির্বাচনে বিজেপি অভূতপূর্ব সাফল্য পাবে।”

অন্যদিকে সিপিএমের জেলা সম্পাদক সলিল আচার্য বলেন, “কিছু মানুষ আমাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলেও যদি লোকসভা নির্বাচনে মানুষ ভোট দিতে পারে তাহলে এবার এখানে বামেরাই ভালো ফল করবে।” তবে এতসবের মধ্যেও আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে এবার এই জলপাইগুড়ি লোকসভা কেন্দ্রে তাদের প্রার্থী বিজয় চন্দ্র বর্মনই জয় লাভ করবেন বলে আশাবাদী শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

সব মিলিয়ে কি হবে, কার দখলে থাকবে জলপাইগুড়ি লোকসভা কেন্দ্র? ভোটে শেষ হাসি হাসবে কে? তা দেখা যাবে আগামী লোকসভা নির্বাচনের ভোটবাক্স খোলার পরই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!