এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > পঞ্চায়েতে ‘সন্ত্রাসের ছবি’ তুলে ধরতে অতি সক্রিয়তার অভিযোগ রাজভবনের বিরুদ্ধে

পঞ্চায়েতে ‘সন্ত্রাসের ছবি’ তুলে ধরতে অতি সক্রিয়তার অভিযোগ রাজভবনের বিরুদ্ধে



সোমবার রাজ্যে বহু প্রতীক্ষিত পঞ্চায়েত নির্বাচনের নিরাপত্তা , ভোট গ্রহণের প্রক্রিয়া সহ বিভিন্ন বিষয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খ নজরে রাখলো রাজভবন। আর পরদিন মঙ্গলবার সকালেই সেই রিপোর্ট পৌঁছে গেলো কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে। গোপণ সূত্রে পাওয়া খবর অনুয়ারী এমনটাই জানা যাচ্ছে। এদিকে তখনও নবান্নের রিপোর্ট পৌঁছায়নি। এই বিষয়কে কেন্দ্র করেই বিজেপির সদর দফতর থেকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে তোপ দাগলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রসঙ্গত নির্বাচনের দিন রাজ্যের হিংসা , হানাহানি এবং সন্ত্রাস বিষয়ে কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছিলো নবান্নের কাছে। রাজ্যপালের তরফ থেকে রাজ্যের যে কোনো বড় ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে রিপোর্ট পাঠানো হয়। একথা সকলেরই জ্ঞাত।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাই নবান্ন থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে রিপোর্ট না পৌঁছোলেও রাজ্যপালের রিপোর্ট যে আগে পৌঁছোবে এমনটা হওয়াই স্বাভাবিক। কিন্তু এসব জানা সত্ত্বেও এদিন প্রধানমন্ত্রী কড়া সমালোচনা করলেন রাজ্য সরকারের। প্রধানমন্ত্রীর মতে, বাংলার গণতন্ত্রকে খুন করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজ ও বিচার বিভাগের ভূমিকার কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন । উল্লেখ্য পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন বিকেলে রাজ্যের বিরোধীদলের পক্ষ থেকে বিজেপি ও বাম শিবির রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর কাছে রাজ্যের সন্ত্রাসের ঘটনার অভিযোগ জানায়। এই ঘটনা ছাড়া ও ঐদিনের হিংসার প্রত্যেকটি ঘটনার বর্ণনা দেওয়া হয়েছে কেন্দ্র কে পাঠানো রাজ্যপালের রিপোর্টে। গোপণ সূত্রে পাওয়া খবর অনুসারে এই রিপোর্টের সাথে রাজ্যপাল গোয়েন্দা রিপোর্টও পাঠিয়েছেন ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!