এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতে হেরে তৃণমূলের বিদ্রূপে মানসিক অবসাদে আত্মহত্যা বিজেপি মহিলা প্রার্থীর

পঞ্চায়েতে হেরে তৃণমূলের বিদ্রূপে মানসিক অবসাদে আত্মহত্যা বিজেপি মহিলা প্রার্থীর



২০১৮ এর পঞ্চায়েত ভোটের ফলাফল সাক্ষী থাকলো আর এক বেনজির দৃষ্টান্তের। কীটনাটক খেয়ে আত্মহত্যা করলেন বছর ২৭ এর বিজেপি প্রার্থী সাধনা সামন্ত। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই খবর পাওয়া গেছে। কিন্তু কেন নিতে হল ওই তরুণীকে আত্মহননের পথ? এই প্রশ্নের উওর জানতে চোখ রাখুন নীচের খবরে।পুলিশি দফতর এবং স্থানীয় সূত্রের খবর থেকে জানা গেছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার দিগম্বরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ১৩ নং সংসদের ৫৪ নম্বর বুথে পদ্ম প্রতীকে লড়েছিলেন,সাধনা দেবী। তাঁর বিপ্রতীপে ঘাসফুল প্রার্থী হয়ে লড়ছিলেন তাঁরই কাকি শাশুড়ি সুজাতা সামন্ত। ভোটের ফলাফল প্রকাশ্যে আসতেই জানা গেলো এলাকায় জয় হয়েছে তৃণমূলের। অর্থাৎ নিজের কাকি শাশুড়ির কাছেই ভোটে হেরে যান সাধনাদেবী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এরপর থেকেই নাকি তৃণমূল কর্মীদের নানা ব্যঙ্গ বিদ্রূপের শিকার হতে হচ্ছিল  সাধনা দেবীকে। যার ফলে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে ছিলেন সাধনাদেবী। তার জেরেই তিনি সিদ্ধান্ত নেন আত্মহত্যার। এমনটাই জানিয়েছে স্থানীয় বিজেপি নেতারা। কীটনাশক পান করার পর তাকে ভর্তি করা হয়েছিল স্থানীয় গদামথুরা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। সেখানেই প্রাণত্যাগ করেন তিনি। রাজ্যে একদিকে যেমন সবুজ আবীরে ভাসছে রাজ্য সেখানে অন্যদিকে গেরুয়া পার্টির এক ভোটপ্রার্থী এভাবে আত্মহনন বিষ্ময় চিহ্ন রেখে গেলো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর  বিশ্ব বাংলার রাজনীতির অঙ্গনে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!