এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনে তৃণমূলকে আটকাতে বিজেপির হাত ধরতেও রাজি অধীর চৌধুরী

পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনে তৃণমূলকে আটকাতে বিজেপির হাত ধরতেও রাজি অধীর চৌধুরী



সদ্য সমাপ্ত রাজ্যের নবম ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনে শাসক দলের কাছে শোচনীয় পরাজয় এলেও এখনই হতাশ হয়ে পড়ছেনা কংগ্রেস নেতৃত্ব। বর্তমান পরিস্থিতিতে কংগ্রেস দলের রাজ্য নেতৃত্ব তৃণমূল কংগ্রেসকে শায়েস্তা করতে নতুন ছক কষছে। সেই পরিকল্পনার সফল বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে বুধবার বিধানভবনে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরীর নেতৃত্বে সমস্ত জেলার সভাপতিদের নিয়ে বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতির আসনে কংগ্রেস রাজ্যের শাসক দলের কাছে বড় বাধা হয়ে উঠতে পারে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 সূত্রের খবর, তৃণমূল কংগ্রেসকে হারাতে সেই আসনগুলিতে বিক্ষুব্ধ তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অথবা বিজেপির দলের সাথে আসন সমঝোতা করতে পারে। মুর্শিদাবাদ ও মালদহের বেশ কয়েকটি পঞ্চায়েত আসনে কংগ্রসের ফলাফল এখনও অনেক হিসেব বদল করে দিতে পারে এমন অনুমান ও করা হচ্ছে। একইরকম সম্ভবনা রয়েছে নদীয়া জেলার চাপড়া পঞ্চায়েত সমিতি এবং হাওড়া জেলার জগত্‍বল্লভপুরে। উল্লেখ্য সদ্য সমাপ্ত ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফল অনুযায়ী কংগ্রেস জেলা পরিষদে ৩টি, পঞ্চায়েত সমিতিতে ১২৭টি ও গ্রাম পঞ্চায়েতে ৮৬৯টি আসনে জয়লাভ করেছে। কিন্তু রাজ্যের শাসক দল কে নাগাল করার কোনো সুযোগ হাতছাড়া করতে রাজী নয় কংগ্রেস নেতৃত্ব। তাই প্রয়োজন হলে তারা বিক্ষুদ্ধ তৃণমূল কংগ্রেস সদস্য যারা নির্দল প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়েছে তাদের সাথে অথবা বিজেপির সাথে আসন সমঝোতা করতে প্রস্তুত। কংগ্রেস দলের এক নেতা এই প্রসঙ্গে বললেন, ”এখানে আমাদের রাজনৈতিক শত্রু তৃণমূল। তাই শত্রুর শত্রু যারাই হবে তারাই আমাদের মিত্র।”

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!