এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > পাকিস্তানের নির্বাচনে ইমরান খানের জয়ের পাশাপাশি ঘটল ঐতিহাসিক ঘটনা – জানলে চমকে যাবেন

পাকিস্তানের নির্বাচনে ইমরান খানের জয়ের পাশাপাশি ঘটল ঐতিহাসিক ঘটনা – জানলে চমকে যাবেন



সদ্য সমাপ্ত পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে একটি অভাবনীয় এবং বিস্ময়কর ঘটনা ঘটলো। প্রথমবারের জন্যে দেশের সাধারণ নির্বাচনে জয়লাভ করলেন কোনও হিন্দু প্রার্থী। জয়ী প্রার্থী হলেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির  নেতা মহেশ মালানি। প্রসঙ্গত, ২০০২ সালে পাকিস্তানের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশারফ সংবিধান সংশোধন করার পর, সেখানে সংখ্যালঘুরা ভোটাধিকার ও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার অধিকার পাওয়ার পরে এই প্রথম কোনও অ-মুসলিম ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির নির্বাচন জিতলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

স্বাভাবিক ভাবেই এই জয়ে যারপরনাই আনন্দিত  মহেশ মালানি। উল্লেখ্য তিনি দক্ষিণ সিন্ধ প্রদেশের থারপারকার-২ নির্বাচনী আসনে ১৪ জনকে পিছনে ফেলে জয়লাভ করেছেন। ২০০২ সালে সংবিধানের সংশোধনী বিল পাশ হওয়ার ১৬ বছর পরে মহেশ কুমার মালানিই ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির সিটে প্রথম অ-মুসলিম প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করলেন। জানা যাচ্ছে এই নির্বাচনে তিনি মোট ১ লাখ ৬ হাজার ৬৩০ ভোট পান।

জন্ম সূত্রে  মহেশ কুমার মালানি হলেন হিন্দু রাজস্থানি পুষ্কর ব্রাহ্মণ। তিনি পাকিস্তানেরই আজন্ম নাগরিক। সে দেশে তিনি ২০০৩ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত পিপিপি-র মনোনয়নে সংরক্ষিত আসন পান । এরপরে ২০১৩ সালে সিন্ধ অ্যাসেম্বলির থারপারকার-৩ জেনেরাল আসনে জয়লাভ করেন। এই জয়ের ফলে তিনি প্রভিনসিয়াল অ্যাসেম্বলির প্রথম অ-মুসলিম সদস্য হন । এছাড়াও তিনি সিন্ধ অ্যাসেম্বলির খাদ্য বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারপার্সন ছিলেন। দেশের প্রাক্তন সরকারের আমলে তিনি স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড পার্লামেন্টারি অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস, স্ট্যান্ডিং কমিটি অন মাইনরিটিজ অ্যাফেয়ার্স, স্ট্যান্ডিং কমিটি অন এনার্জি ও স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ট্রান্সপোর্ট অ্যান্ড মাস ট্রানজিটেরও সদস্য ছিলেন।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!